অর্থকড়ি
শিরোনাম: কে এই মামুনুল হক?       কলাপাড়ায় কিছুতেই থামছে না আন্ধারমানিক নদীর দখল দৌরাত্ম       গাজীপুরে পুলিশ দম্পত্তিকে মারধোর       ব্যবসায়ীদের সুযোগ-সুবিধা আরো বাড়ানো দরকার : অর্থমন্ত্রী       আনারস ফলে রয়েছে অনেক গুণাগুণ       ‘বিএনপির মিথ্যাচারের থলের বিড়াল বেরিয়েছে’       পত্র-পত্রিকায় আমার বক্তব্য বিকৃত করে ছাপা হয়েছে : মির্জা আব্বাস       আন্তঃব্যাংক লেনদেন চালু       একদিনে রেকর্ড ১০২ মৃত্যু       রাজশাহীতে বের হবার করণ দেখাতে না পারলে ফিরতে হচ্ছে উল্টো পথে      
অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে বাংলাদেশের নারীরা পিছিয়ে
কাগজ ডেস্ক:
Published : Thursday, 25 February, 2021 at 7:19 PM, Count : 70
অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে বাংলাদেশের নারীরা পিছিয়েদক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশের নারীরা অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে এখনো অনেক পিছিয়ে আছে। বিশেষ করে সমমজুরি মাতৃত্ব, সম্পদ ও পেনশন প্রাপ্তিতে তেমন কোন অগ্রগতি নেই দেশের নারীদের। তবে নারী ও পুরুষের সমান অংশগ্রহণ থাকলে অর্থনীতির পূর্ণ বিকাশ হতে পারে বলে মনে করে বিশ্বব্যাংক।
বুধবার বিশ্বব্যাংকের উইমেন বিজনেস অ্যান্ড দ্য ল ২০২১ ইনডেক্স প্রতিবেদনে এ সব তথ্য উঠে এসেছে। এতে বলা হয়, নারী ও পুরুষের সমান অংশগ্রহণে সব সূচকে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে পিছিয়ে বাংলাদেশ।
আটটি সূচকের আলোকে প্রতিবেদনটি করা হয়েছে। মোট ১০০ পয়েন্টের মধ্যে বাংলাদেশ পেয়েছে ৪৯ দশমিক ৪। অর্থাৎ পুরুষের চেয়ে নারীরা অর্ধেকেরও কম সুবিধা পাচ্ছে।
উল্লেখ্য ২০২০ সালের প্রতিবেদনেও বাংলাদেশের এই একই স্কোর ছিল। অর্থ্যাৎ ব্যবসায়িক কর্মকা-ে আইনি সুরক্ষা সূচকেও গত এক বছরে অবস্থানের কোনো পরিবর্তন হয়নি।
এবারের প্রতিবেদনে দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে ভালো অবস্থান নেপালের। দেশটির সূচক ৮০ দশমিক ৬ পয়েন্ট। এরপরই আছে ভারত, তাদের পয়েন্ট ৭৪ দশমিক ৪।
সূচকে তার পরেই ৭৩ দশমিক ৮ পয়েন্ট নিয়ে আছে মালদ্বীপ। ভুটান আছে ৭১ দশমিক ৯, শ্রীলঙ্কার ৬৫ দশমিক ৬ এবং পাকিস্তান রয়েছে ৫৫ দশমিক ৬ পয়েন্টে। এই অঞ্চলে শুধু আফগানিস্তানের ওপরে রয়েছে বাংলাদেশ। তাদের পয়েন্ট ৩৮ দশমিক ১।
তবে নারীর অবাধ চলা ফেরায় এবার শতভাগ নম্বর অর্জন করেছে বাংলাদেশ।
বিশ্বব্যাংকের উইমেন বিজনেস অ্যান্ড দ্য ল ২০২১ ইনডেক্স প্রতিবেদনে চলাচলের স্বাধীনতা, কর্মক্ষেত্রের সমতা, মজুরি, বিবাহ, পিতৃত্ব-মাতৃত্ব, উদ্যোগ, সম্পদ ও পেনশন এই আটটি সূচকের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রতিটি সূচকের সর্বোচ্চ নম্বর ১০০। এরপর তা গড় করা হয়েছে।
অর্থাৎ বাংলাদেশের নারীদের এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যাওয়ায় বাধা নেই। কর্মক্ষেত্রের সমতায় বাংলাদেশ পেয়েছে ৫০, মজুরির ক্ষেত্রে ২৫, বিবাহে ৬০, মাতৃত্বে ২০, উদ্যোগে ৭৫, সম্পদে ৪০ ও পেনশনে ২৫। সব মিলিয়ে গড় দাঁড়ায় ৪৯ দশমিক ৪।
প্রতিবেদনে বিশ্ব ব্যাংক আশঙ্কা প্রকাশ করে জানায়, বিশ্বব্যাপী করোনার প্রভাবে নারী-পুরুষ ব্যবধান বেড়ে যেতে পারে। অর্থনৈতিক সম্ভাবনা কাজে লাগাতে নারীরা এখনো আইন ও নীতির বাধায় রয়েছে।
এবারের প্রতিবেদনের তথ্যমতে, পৃথিবীর ১০টি দেশের অর্থনীতিতে নারীর অংশগ্রহণ পুরোপুরি অবাধ। দেশগুলোর স্কোর ১০০। দেশগুলো হলো বেলজিয়াম, কানাডা, ডেনমার্ক, ফ্রান্স, আইসল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, লাটভিয়া, লুক্সেমবার্গ, পুর্তগাল ও সুইডেন।
এছাড়া প্রতিবেদনে মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকার নারীরা অর্থনৈতিক কার্যক্রমে অংশ নেওয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে পিছিয়ে আছেন। তালিকার সবচেয়ে কম স্কোর নিয়ে রয়েছে ঘানা, ইয়েমেন, কুয়েত, সুদান, কাতার, ইরাক, ওমান, সিরিয়া ও আফগানিস্তান।
বিশ্ব ব্যাংক মনে করে নারী ও পুরুষের সমান অংশগ্রহণ থাকলে অর্থনীতির পূর্ণ বিকাশ হতে পারে। অনেক দেশের সরকারও সেই গুরুত্ব বুঝতে পারছে। কিন্তু অনেক দেশেই এখনো নারীদের অর্থনৈতিক কার্যক্রমে অংশ নেওয়ার ক্ষেত্রে আইনি বাধা আছে।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft