দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: খানসামায় পেঁয়াজ বীজ উৎপাদন ও সংরক্ষণের পরীক্ষামূলক চাষেই সাফল্য       বগুড়ায় ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬৮       স্মার্টফোনের ভাইরাস রিমুভ করবেন যেভাবে       চুলের যত্নে রেড়ির তেলের ব্যবহার       কোম্পানীগঞ্জে আ.লীগের আরেক নেতার ওপর হামলা       নারায়ণগঞ্জে ২৪ ঘণ্টায় আরও ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১০৮       মহেশপুর সীমান্তে শিশু ও নারীসহ ৪জন আটক       চুড়ামনকাটিতে ৫ ব্যবসায়ীকে ভোক্তা অধিকারের জরিমানা       মহেশপুরে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় ৭জন গ্রেফতার       সোমবার যশোরে ৫৩ জনের করোনা শনাক্ত      
বাঘারপাড়ার নারিকেলবাড়িয়া চাঁদা দাবির অভিযোগ
গ্রাম পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন
স্টাফ রিপোর্টার, বাঘারপাড়া (যশোর)
Published : Monday, 8 March, 2021 at 8:45 PM, Update: 08.03.2021 8:47:44 PM, Count : 335
গ্রাম পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন চাঁদাবাজি বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন যশোরের বাঘারপাড়ার নারিকেলবাড়িয়া বাজারের ব্যবসায়ীরা। সোমবার দুপুরে এ মানববন্ধনের সময় ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে চাঁদা দাবির অভিযোগ করা হয়। তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন নজরুল ইসলাম।
লিখিত অভিযোগ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালনকালে ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী ইমরান হোসেন বলেন, ‘গত ২৫ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টার দিকে গ্রাম পুলিশ নজরুল ইসলাম ইউএনও পরিচয় দিয়ে মোবাইল ফোনে এক ব্যক্তির সাথে কথা বলিয়ে দেন। কথিত ওই ইউএনও আমার ব্যক্তিগত ফোন নম্বর চাইলে আমি দেই। এর এক ঘণ্টা পর রাত ৯টার দিকে ওই ব্যক্তি অপরিচিত একটি মোবাইল নম্বর থেকে ফোন করে বলেন, জেলা প্রশাসকের বিশেষ টিমের মাধ্যমে আপনাদের বাজারে রেট (অভিযান পরিচালনা করা) দেয়া হবে। আপনার দোকান রেট হওয়া থেকে বাঁচাতে হলে বিকাশের মাধ্যমে ৫০ হাজার টাকা পাঠাতে হবে। বিকাশের দোকান বন্ধ থাকার কথা জানালে কথিত ওই ইউএনও আমাকে বলেন, গ্রাম পুলিশ নজরুলের কাছে আজ রাতেই টাকা দিতে হবে। আমি রাতে টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে হুমকি দিয়ে ফোনের লাইন কেটে দেন তিনি’।
একই ধরনের অভিযোগ করেন আরেক ভুক্তভোগি শুভ সাহা।
এ ব্যাপারে নারিকেলবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বণিক সমিতির উপদেষ্টা বাবলু সাহা বলেন, ‘গ্রাম পুলিশের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ নতুন নয়। তিনি বিভিন্ন সময় বাজারের ব্যবসায়ীদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে অনৈতিক সুবিধা নিয়ে থাকেন। আমরা এ ঘটনার সঠিক বিচার চাই’।
অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে গ্রাম পুলিশ নজরুল ইসলাম বলেন, ‘ম্যজিস্ট্রেট সেজে আমাকে ফোন করেছিলেন এক ব্যক্তি। ওই ব্যক্তি নারিকেলবাড়িয়া বাজারের ইমরান হোসেন ও শুভ সাহা নামে দু’জন মিষ্টি ব্যবসায়ীর সাথে কথা বলতে চাইলে আমি তাদের সাথে কথা বলিয়ে দেই। পরে ইউএনও স্যারকে বিষয়টি জানালে স্যার আমাকে জানান সম্ভবত প্রতারক চক্রের কাজ এটি। স্যারের কথামতো আমি ইমরান ও শুভকে বিষয়টি জানিয়ে দিয়ে বলি কোন প্রকার লেনদেন না করতে। এ বিষয় নিয়ে আমাকে ফাঁসাতে চায় স্থানীয় একটি পক্ষ। যারা চেয়ারম্যান সাহেবের বিরোধী শিবিরের লোক’।
নারিকেলবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু তাহের আবুল সরদার বলেন, ‘আমার বিরোধী পক্ষের লোকজন গ্রাম পুলিশ নজরুলের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে মেতেছে। এ বিষয়ে ইউএনও স্যার ও ওসি সাহেব অবহিত আছেন’।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানিয়া আফরোজ বলেন, ‘একদল প্রতারক চক্র ম্যাজিস্ট্রেট সেজে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে চাঁদা দাবি করে আসছে বলে জানতে পেরেছি। নারিকেলবাড়িয়া ছাড়াও দরাজহাট ইউনিয়নে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে বলে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাহেব আমাকে জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে আইনশৃংখলা মিটিংয়ে আলোচনা করা হবে। প্রতারক চক্রকে ধরার জন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেয়া হবে’। গ্রাম পুলিশ নজরুল ইসলাম এ ঘটনায় জড়িত নয় বলেও মত দেন তিনি।
মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তৃতা করেন নারিকেলবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বণিক সমিটির উপদেষ্টা বাবলু কুমার সাহা, নারিকেলবাড়িয়া বণিক সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন, ভুক্তভোগী ইমরান হোসেন ও শুভ সাহা, সুবোল সাহা, আন্টু মন্ডল, মঞ্জুর শেখ, ইবাদুল মোল্লা, মাসুদ মোল্লা, বাচ্চু ডাক্তার, অসীম সাহা এবং ইউপি সদস্য তরিকুল ইসলাম। মানববন্ধনে শতাধিক ব্যবসায়ী অংশ গ্রহণ করেন।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft