শিক্ষা বার্তা
শিরোনাম: চিরবিদায় নিলেন চিত্রনায়ক ওয়াসিম       মানবতার ফেরিওয়ালাদের দেখা নেই       এক সপ্তায় চালু হচ্ছে যমেক হাসপাতালের আইসিইউ       হাজার হাজার মানুষের লাশ কাটা গোবিন্দও লাশ হলেন       ডাক্তার সেজে ওটির সামনে রোগী দেখেন সহকারী ফিরোজ       যশোরে সাড়ে সাত হাজারের বেশি পণ্য হোম ডেলিভারি দেবে চাল ডাল ডটকম       খাজুরায় জুয়াড়ীদের ধরতে পুলিশি তৎপরতা, জুয়ার কোটে অভিযান       মেডিকেলে ভর্তিতে যশোরে ভ্যানচালকের মেয়ের অভূতপূর্ব সাফল্য       হেফাজতে ইসলাম জামায়াতে ইসলামীর বি টিম : হানিফ       প্রেমিকার আপত্তিকর ছবি ইন্টারনেটে দেয়ায় যুবক গ্রেফতার      
লকডাউনেও ফুলতলা সৃজনীর কোচিং
হাশিমপুরে দু’ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পুঁজি করে বেশুমার বাণিজ্য
দেওয়ান মোর্শেদ আলম
Published : Thursday, 8 April, 2021 at 9:44 PM, Update: 08.04.2021 10:34:21 PM, Count : 240
হাশিমপুরে দু’ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পুঁজি করে বেশুমার বাণিজ্য করোনা সংকটের মধ্যে সরকার ঘোষিত লকডাউন উপেক্ষা করে যশোরের গোপালপুর ফুলতলা এলাকায় কোচিং বাণিজ্য চালাচ্ছে সৃজনী। সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে হাশিমপুর এলাকায় আরও দু’টি কোচিং সেন্টার চালাচ্ছে একটি চক্র। করোনায় সরকার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিলেও নির্দেশনা অমান্য করে অবৈধভাবে কোচিং বাণিজ্য চালানো হচ্ছে দু’টি বিদ্যালয়সহ ওই তিন প্রতিষ্ঠানে।
দেশে প্রতিদিনই করোনার রোগী বাড়ছে। সেইসাথে বাড়ছে মৃত্যুআতঙ্ক। সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারি-বেসরকারি সংস্থাগুলো সর্বশক্তি প্রয়োগ করে মাঠে নেমেছে। কিন্তু লকডাউনের মধ্যেও যশোরাঞ্চলের মানুষ সেভাবে সচেতন আচরণ করছেন না। এই পরিস্থিতিতে গোপালপুর ফুলতলা সৃজনী কোচিং সেন্টার কর্তৃপক্ষ চালাচ্ছে শিক্ষাবাণিজ্য।
লকডাউনের মধ্যেও প্রতিদিন কোচিংটি খোলা পাওয়া গেছে। প্রশাসনের পক্ষে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে মোড়ে মোড়ে মাইকিং করে সতর্ক ও হুশিয়ারি দেয়া হলেও তাদের টনক নড়েনি। দলে দলে ছাত্রছাত্রী ওই কোচিংয়ে আসতে দেখা গেছে।
হাশিমপুর বাজারকেন্দ্রিক দু’টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পুঁজি করে কোচিং বাণিজ্য চালাচ্ছে চক্রের সদস্যরা। ওই চক্র বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জড়িত এবং কোচিং সেন্টার ব্যবসায়ী। তালবাড়িয়া ডিগ্রি কলেজ সংলগ্ন গোপালপুরের সৃজনী কোচিং সেন্টার নামে একটি কোচিং সেন্টার লকডাউনের মধ্যেও চালিয়েছেন হাবিবুর রহমান নামে এক ব্যক্তি।
এছাড়া, হাসিমপুরের বহুল আলোচিত এক স্কুলকে পুঁজি করে চলছে রমরমা কোচিং বাণিজ্য। বাজারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি স্থাপিত হলেও রাস্তার অপর পাশে কিছুদূর এগিয়ে এক শিক্ষার্থীর বাড়িতে চালানো হচ্ছে কোচিং সেন্টার। বিষয়টি জানাজানি হলে সেখান থেকে কাশিমপুর সড়কের একটি নির্জন স্থানে বাড়ি ভাড়া নিয়ে সেখানে চালানো হচ্ছে সেন্টারটি। একই বাজারে আরও একটি স্কুলকে পুঁজি করে চলছে কোচিং।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মনোহরপুর বাজারের আরও একটি স্কুলে গোপনে চলছে কোচিং ক্লাস। সেখানে শিক্ষার্থীদের সপ্তায় তিনদিন করে বা দু’দিন ভাগ করে চলছে ক্লাস। এসব প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অষ্টম, নবম, দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নেয়া হচ্ছে দু’ হাজার টাকা করে টিউশন ফি। এ ব্যাপারে দ্রুত সংশ্লিষ্ট ওই বিতর্কিতদের বিরুদ্ধে  ব্যবস্থা নেয়ার দাবি উঠেছে।
সৃজনী কোচিং সেন্টারের পরিচালক হাবিবুর রহমান গ্রামের কাগজকে জানিয়েছেন ইচ্ছা করে কোচিং খোলা রাখা হয়নি। মাসের শুরু তাই গত মাসের বেতন আদায়ের জন্য ছাত্রছাত্রীদের কোচিংয়ে আসতে বলা হয়েছিল। গত কয়েকদিন শুধু টাকা আদায় করার জন্য একজন শিক্ষক নিযুক্ত করা হয়েছিল। একইসাথে শিক্ষার্থীরাও এসেছিল। বৃহস্পতিবার থেকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। লকডাউন ও করোনায় সাস্থ্যবিধি মানার ব্যাপারে তারাও আন্তরিক। এখন থেকে ঠিকঠাকভাবে বিধি ও নির্দেশনা মেনে চলবেন বলেও জানান হাবিবুর রহমান।















« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft