দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: চালুর প্রথম দিনে যাত্রী সংকটে গণপরিবহন (ভিডিও)       যে নিউজ ভাইরাল হলো       ভয়ানক ফ্রি ফায়ার ও পাবজি গেমসে শিশু কিশোররা        ভারতে গেল কোভিড-১৯ এর চিকিৎসা সামগ্রীর প্রথম চালান        শার্শায় মাছের ঘেরে বিষ প্রয়োগ দশ লাখ টাকার মাছ নিধন       মুরগি মরাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ৫       যমেক হাসপাতাল ছাত্রলীগের ইফতারি বিতরণ        কাজী বর্ণ উত্তমের ইফতারি বিতরণ        অভিযুক্ত লুৎফর-ছোট্টকে চালান       রিকশা থামিয়ে ছিনতাইয়ের সময় দু’জনকে গণধোলাই      
কাঠ ব্যবসায়ী গোলাম মোস্তফা হত্যা মামলায় চার্জশিট
কাগজ সংবাদ
Published : Sunday, 18 April, 2021 at 8:51 PM, Count : 171
কাঠ ব্যবসায়ী গোলাম মোস্তফা হত্যা মামলায় চার্জশিটচুড়ামনকাটির কাঠ ব্যবসায়ী গোলাম মোস্তফা হত্যা মামলায় দু’জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট জমা দিয়েছে পুলিশ। নিহত গোলাম মোস্তফা (৫০) চুড়ামনকাঠি ইউনিয়নের বাগডাঙ্গা গ্রামের পাঁচু মন্ডলের ছেলে।  
অভিযুক্তরা হলেন চুড়ামনকাটি গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে আব্দুল্লাহ আল মামুন ও শাখারিগাতী গ্রামের মাজেদ মোল্লার ছেলে শহিদুল ইসলাম। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই সোলায়মান আক্কাস আদালতে এ চার্জশিট জমা দেন।
গত বছরের ২৫ অক্টোবর সকালে যশোর সদরের চুড়ামনকাটি ঘোনা রোড এলাকায় ভৈরব নদ থেকে মোস্তফার গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ২৬ অক্টোবর নিহতের স্ত্রী সালমা বেগম অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন। ২৮ অক্টোবর সন্ধ্যায় ডিবি পুলিশের ইনচার্জ সোমেন দাশের নেতৃত্বে একটি টিম অভিযান চালিয়ে চুড়ামনকাটি থেকে কাঠ ব্যবসায়ী আব্দুল্লাহ আল মামুনকে আটক করেন। এরপর তার দেওয়া তথ্যমতে, যশোর শহরের মুড়লি মোড় থেকে তার সহযোগী সহিদুল ইসলামকে আটক করা হয়। পরে তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।
চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়, কাঠ ব্যবসায়ী গোলাম মোস্তফার সাথে ব্যবসায়িক দ্বন্দ্বে তাকে খুন করার পরিকল্পনা করেন আব্দুল্লাহ আল মামুন। ওই পরিকল্পনার অংশ হিসেবে তিনি তার বন্ধু পরিবহন শ্রমিক সহিদুল ইসলামকে ম্যানেজ করেন। ঘটনার দিন মামুন মোবাইল ফোনে গোলাম মোস্তফাকে জানান, বড় একজন কাঠ ব্যবসায়ী এসেছেন। তার সঙ্গে যেন সন্ধ্যায় দেখা করেন। এরপর সন্ধ্যায় তারা তিনজন একটি মোটরসাইকেলে ঘটনাস্থলে যান। সেখানে ফেনসিডিল ও গাঁজা সেবন করেন। এক পর্যায়ে আব্দুল্লাহ আল মামুন তার সহযোগী সহিদুল ইসলামের সহায়তায় ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যার পর মোস্তফার মরদেহ বুড়িভৈরবে ফেলে কচুরিপানা দিয়ে ঢেকে চলে যান।






« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft