অর্থকড়ি
শিরোনাম: হাসপাতালে স্বেচ্ছাসেবক লেবাসধারীদের বিরুদ্ধে কঠোর হুশিয়ারি প্রতিমন্ত্রীর       যমেক হাসপাতালে আইসিইউ উদ্বোধন        আ’লীগ নেতা কাজী বর্ণ মানবতা ভ্যানের ২১ দিনে ৮ হাজার প্যাকেট খাবার বিতরণ       এমপি নাবিলের পক্ষে ঈদ উপহার ও ইফতারি বিতরণ       শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি       গঠণতন্ত্র সংশোধনের সিদ্ধান্ত, নির্বাচন ২৬ জুন       দেড় হাজার পিস ইয়াবাসহ ৪ কারবারী আটক        সংবাদপত্র হকার্স ইউনিয়নের উৎসব ভাতা প্রদান সোমবার       ভারত থেকে বিপজ্জনক বার্তা পাওয়া যাচ্ছে : কাদের       খাদ্যশস্য সংগ্রহে ধানকে প্রাধান্য দিতে হবে : খাদ্যমন্ত্রী      
শিশুদের বাহারি পোশাকে সেজেছে বিপনিবিতানগুলো
মিনা বিশ্বাস
Published : Friday, 30 April, 2021 at 9:53 PM, Count : 159
শিশুদের বাহারি পোশাকে সেজেছে বিপনিবিতানগুলোবছর ঘুরে আবারও আসছে পবিত্র ঈদ উল ফিতর। মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব। নতুন পোশাক ছাড়া এ উৎসবের আনন্দ যেনো জমে না। পোশাকটাও হওয়া চায় আকর্ষণীয়। সারা বছর কেনাকাটা করলেও তাই ঈদের কেনাকাটার সাথে থাকে কিছু পার্থক্য। তবে এবারের বাস্তবতা ভিন্ন। করোনা দুর্যোগে ২০ দিন বন্ধ থাকার পর ১২ রোজার পর থেকে ক্রেতারা পেলেন কেনাকাটার সুযোগ। সাথে সাথেই সেজে ওঠে বিপনিবিতানগুলো। অল্প হলেও আসছেন ক্রেতা। পরিবার-পরিজন নিয়ে কেনাকাটায় সরগরম হতে শুরু করেছে ঈদবাজার। আগামী কয়েক দিনে বাজার বেশ জমজমাট হবে বলেও আশাবাদি বিক্রেতারা।   
ঈদের আনন্দ সবার কাছেই সমান হলেও শিশুদের কাছে তা একটি বাড়তি মাত্রা পায়। নতুন পোশাক, নতুন জুতায় পরিপাটি হয়ে বাড়ির বড়দের সাথে বা পরিবার-এলাকার অন্য শিশুদের সাথে আনন্দে মেতে উঠতে তাদের জুড়ি নেই। সে কারণে প্রায় প্রতিটি পরিবারে আগেভাগেই শিশুদের জন্য ঈদ উপহার কেনার তাড়া থাকে। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। তবে অন্য যে কিনছেন না তা নয়।
শহরের বিভিন্ন বিপনিবিতান শিশুদের নানান পোশাকে সেজে উঠেছে। যশোর ইনস্টিটিউট মার্কেট, কালেক্টরেট মার্কেট, এইচএমএম রোড, চৌরাস্তা মোড়, সিটি প্লাজা, মুজিব সড়কের ফ্যাশন হাউজে শিশুদের বিভিন্ন পোশাক পাওয়া যাচ্ছে। বিভিন্ন দোকানে সামর্থ্য অনুযায়ী ক্রেতারা তাদের পছন্দের পোশাকটি বেছে নিচ্ছেন।
ইনস্টিটিউট মার্কেটে শিশুদের পোশাক পাওয়া যাচ্ছে সর্বনিম্ন দুশ’ টাকা থেকে সর্বোচ্চ এক হাজার দুশ’ টাকায়। এসব পোশাকের মধ্যে রয়েছে প্যান্ট, গেঞ্জি, পাঞ্জাবি, ফ্রক, স্কার্ট, লেহেঙ্গা। কালেক্টরেট মার্কেটে শিশুদের পোশাক পাওয়া যাচ্ছে তিনশ’ টাকা থেকে দু’ হাজার টাকায়।
কালেক্টরেট মার্কেটের বিক্রেতা বুলবুল আহমেদ বলেন, ক্রেতারা আসতে শুরু করেছেন। শিশুদের পোশাকের বিক্রি ভালো। অন্যদিকে এইচএমএম রোড ও চৌরাস্তা মোড়ে শিশুদের শার্ট, প্যান্ট, গেঞ্জি, ফ্রক, থ্রিপিস, লেহেঙ্গা পাওয়া যাচ্ছে পাঁচশ’ টাকা থেকে দু’ হাজার টাকায়। অন্যদিকে, অভিজাত শপিংমল সিটি প্লাজায় শিশুদের দেশি বিদেশি পোশাক মিলবে সর্বনিম্ন চারশ’ টাকা থেকে সর্বোচ্চ আট হাজার টাকায়। এ তালিকায় রয়েছে গেঞ্জি, প্যান্ট, শার্ট, পাঞ্জাবি, স্কার্ট, ফ্রক, থ্রিপিস ও লেহেঙ্গা।
সিটি প্লাজার কিডস ক্লাবের সত্ত্বাধিকারী এস কে মমিনুল ইসলাম বলেন, বিশ দিন দোকান বন্ধ থাকার কারণে এবার দেরীতে ঈদের বিক্রি শুরু হয়েছে। তবে শিশুদের পোশাকের বিক্রি ভালো। ঈদের আগ পর্যন্ত যা বিক্রি হবে তাই নিয়ে আমাদের সন্তুষ্ট থাকতে হবে। করোনা দুর্যোগের কারণে গতবারের মতো এবারও আমরা লাভের আশা ছেড়ে দিয়েছি।
অন্যদিকে মুজিব সড়ককের ফ্যাশন হাউজগুলোতে শিশুদের বাহারি পোশাক পাওয়া যাচ্ছে পাঁচশ’ টাকা থেকে তিন হাজার টাকায়। ফ্যাশন হাউজ রঙ এর সত্ত্বাধিকারী তনুজা রহমান মায়া বলেন, ‘আমরা সব ধরণের ক্রেতার কথা মাথায় রেখেছি। বিভিন্ন দামে এখান থেকে ক্রেতারা পোশাক কিনতে পারছেন। বাচ্চাদের জন্য ভালো কালেকশান রয়েছে আমাদের শোরুমে। তবে করোনা দুর্যোগের কারণে বিক্রি আশানুরূপ নয়’।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft