দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: যশোরে গাঁজাসহ নারী আটক       মোরেলগঞ্জে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটে ১০ দোকান পুড়ে ছাই       অনুপ্রবেশকালে হাসাদাহ থেকে আটক ৮        মানবপাচারকারী চক্রের হোতা সাইফুল র‌্যাবের হাতে আটক       কেশবপুর পৌরসভার উদ্যোগে ১৩ হাজার মাস্ক বিতরণ        উপকূলের উন্নয়নে জাতীয় বাজেটে বিশেষ বরাদ্দ রাখার দাবি       যশোরের নতুন জেলা শিক্ষা অফিসারকে শুভেচ্ছা স্বাশিপের       মণিরামপুরের প্রতিবন্ধী কবির হত্যা মামলায় চার্জশিট       আগামীকাল আলমগীর সিদ্দিকীর ৪৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী        এশিয়ান কাপের বাছাই পর্বে খেলবে বাংলাদেশ      
বোমা বিস্ফোরণে স্কুলছাত্র নিহতের ঘটনায় আরও দু’জন আটক
কাগজ সংবাদ
Published : Monday, 10 May, 2021 at 10:23 PM, Count : 250
বোমা বিস্ফোরণে স্কুলছাত্র নিহতের ঘটনায় আরও দু’জন আটকযশোরের কেশবপুরে কুড়িয়ে পাওয়া বোমা বিস্ফোরণে স্কুলছাত্র আব্দুর রহমান নিহতের মামলায় আরও দু’জনকে আটক করেছে পুলিশ। তারা হলেন, বাউশালা গ্রামের নফর আলী মোড়লের ছেলে শাহিনুর রহমান শাহীন ও একই গ্রামের এরেদ আলী গাজীর ছেলে শামীম গাজী।
গত রোববার রাতে তাদের আটকের পর সোমবার আদালতে সোপর্দ করা হয়। একইসাথে আটক শামীম গাজী আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহাদী হাসান একজনের জবানবন্দি গ্রহণ করেন। পরে তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এর আগে একই মামলায় যুবলীগ নেতা ফারুক হোসেনকে আটক করে তাকে রিমান্ডে নেয়। পরে আদালত থেকে তিনি জামিনে মুক্তি পান।  
জবানবন্দিতে শামীম গাজী জানান, গত ২৮ মার্চ কেশবপুরে নির্বাচন ছিল। তার আগের দিন রাতে যুবলীগ নেতা ফারুকসহ আরও চার-পাঁচজন মোটরসাইকেলে কেশবপুরে যাচ্ছিলেন। তাদের হাতে একটি ব্যাগ ছিল। ওই ব্যাগে ছয়টা বোমা ছিল। সেসময়  শামীম ও তাদের বহরে ছিল। যাবার পথে পুলিশের কথা শুনে তারা একটি বিলের মধ্যে যায়। ওই ব্যাগ খুলে বোমা বের করে। এসময় শামীম ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এরপর থেকে শামীম আর ফারুকদের সাথে মেলামেশা বাদ দেন। পরে জানতে পারে এ ঘটনা।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, কেশবপুর উপজেলার বিদ্যানন্দাকাটি ইউনিয়নের কাউশালা গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে আব্দুর রহমান তার ছোট বোন মারুফাকে নিয়ে বাড়ির পাশে বিলের মধ্যে খেলা করতে যায়। বিলের মধ্যে পরিত্যক্ত একটি টোঙ ঘরের মধ্যে পলিথিনে মোড়ানো একটি কৌটা পেয়ে তারা হাতে করে নিয়ে বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেয়। পথিমধ্যে মসজিদের কাছে আসার পর তার মা নিলুফা বেগমকে কৌটাটি দেখানোর সময় বিস্ফোরণ ঘটে। ঘটনাস্থলেই আব্দুর রহমান মারা যায়। গুরুতর আহত হন মা নিনুফা বেগম ও বোন মারুফা খাতুন।
ওই ঘটনায় নিহত আব্দুর রহমানের চাচা সিরাজুল ইসলাম কেশবপুর থানায় অজ্ঞাতনামা আসামি দিয়ে মামলা করেন। পুলিশ সন্দেহমূলকভাবে বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফারুক হোসেনকে আটক করে। পরে এই দু’ আসামিকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করা হয়।  
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই লিখন কুমার সরকার বলেন, একজন জবানবন্দি দিয়েছেন। তার কাছ থেকে চাঞ্চল্যকর তথ্য এসেছে। অপরজনকে রিমান্ডে নিতে আদালতে আবেদনের প্রক্রিয়া চলছে।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft