জীবনধারা
শিরোনাম: প্রতিটি উপজেলা ফায়ার স্টেশনের কাজ শেষ পর্যায়ে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী       ই-কমার্সে অর্ডার করে নিজেই প্রতারিত হয়েছি : বাণিজ্যমন্ত্রী       চট্টগ্রাম হবে ‘ওয়ান সিটি টু টাউন’       রাজশাহীতে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির শীর্ষ ৩ নেতার জামিন       বিএনপির সিরিজ বৈঠক সিরিজ ষড়যন্ত্রের অংশ : কাদের       গণআন্দোলন গড়ে তোলাই মূল লক্ষ্য: ফখরুল       অক্টোবরে শ্রীলঙ্কায় যাবে বাংলাদেশের যুব ক্রিকেট দল       খানসামায় জনপ্রিয় হচ্ছে পারিবারিক পুষ্টি বাগান       করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২১ জনের মৃত্যু       চসিকের তেল পাচারকালে ধরা খেলেন চালক, খোয়ালেন চাকরি      
গরম থেকে ঠাণ্ডা-জ্বর হলে যা করবেন
কাগজ ডেস্ক :
Published : Thursday, 10 June, 2021 at 5:32 PM, Count : 266
গরম থেকে ঠাণ্ডা-জ্বর হলে যা করবেনআমাদের দেশে কখনো বেশ ঠাণ্ডা আবার কখনো বেশ গরম। আবহাওয়া পরিবর্তনের এসময়ে হালকা ঠাণ্ডা-জ্বর হতেই পারে। এ নিয়ে খুব বেশি চিন্তার কিছু নেই। একটু সচেতন হলেই আমরা ঘরেই প্রকৃতিকভাবে এসব সমস্যা মোকাবেলা করতে পারি।
জ্বর, ঠাণ্ডা লাগা থেকে উপশম পেতে, এ অবস্থায় আমাদের সাহায্য করতে পারে এমন কিছু টিপস এখানে দেয়া হলো।
গরম তরল পানীয়
ঠাণ্ডায় আমাদের নাক বন্ধ হয়ে থাকে। নিশ্বাস নিতে ও ঘুমাতে কষ্ট হয়। অনেক সময় গলা ব্যথা থাকার জন্য খাবার খেতেও কষ্ট হয়। শরীর আর্দ্র রাখতে এসময় গরম তরল পানীয় পান করতে হবে।
স্যুপ, হারবাল চা, কফি, মধু দিয়ে গরম পানি বারবার পান করুন।
জ্বর হলে শরীরের অতিরিক্ত তাপ হলেই আমরা জ্বর বলি। সিজনাল জ্বর হলেও থার্মোমিটার দিয়ে নিয়মিত জ্বর মেপে একটি ছক করে লিখে রাখুন।
শরীর মুছে নিন
হালকা গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে বারবার শরীর মুছে নিন। এতে জ্বরের তাপ কমবে।
নাকে ক্রিম ব্যবহার করুন
ঠাণ্ডা শর্দিতে আমাদের নাক চুলকায়, নাক দিয়ে পানি পড়ে, টিস্যু দিয়ে বারবার নাক মোছার ফলে অনেক সময় নাকের চামড়া ছিলে যায়। এজন্য নাক বেশি ঘষা যাবে না। নাকে ক্রিম ব্যবহার করুন। আর নাক বেশি আটকে থাকলে গরম পানিতে লেবু কেটে দিয়ে সেই ভাপ নিশ্বাসের সঙ্গে টেনে নিন। তারপরও নিশ্বাস নিতে কষ্ট হলে ডাক্তারের পরামর্শে মেন্থল ব্যবহার করুন।
একটি অতিরিক্ত বালিশ নিয়ে ঘুমান
ঠাণ্ডা লাগলে নিঃশ্বাস নিতে সমস্যা হওয়ায় ঘুম ঠিকমতো হয় না। দ্রুত সুস্থ হতে পর্যাপ্ত ঘুম অপরিহার্য্য। এজন্য একটি অতিরিক্ত বালিশ মাথায় দিয়ে ঘুমান।
খাদ্য
এ সময় একবারে না খেয়ে বারে বারে অল্প অল্প খাবার খেতে হবে। ভিটামিন সি জাতীয় খাদ্য বেশি রাখুন প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায়। লেবু, কমলা, পেঁপে, পেঁয়ারা, আমলকি বেশি বেশি খান। ঠাণ্ডা কমবে আর খাবার খেতেও রুচি হবে।
এছাড়াও জ্বর কমে আসে ব্লুবেরি খেলে, বেটা ক্যারোটিন সমৃদ্ধ গাজর, মরিচ, পেঁয়াজ, আদা শরীর পরিষ্কার করে ব্রংকাইটিস ও অন্যান্য সংক্রমণ থেকে রক্ষায় সাহায্য করে, সরিষা, গ্রিন টি প্রাকৃতিক এন্টিবায়োটিকের কাজ করে তাই নিয়মিত এগুলো খেতে হবে।
এন্টিসেপটিক দিয়ে হাত সবসময় পরিষ্কার করতে হবে।
দাঁত মাজার ব্রাশ, চিরুনি, তোয়ালে এগুলো আলাদা রাখতে হবে।
কাশি ও হাঁচি দেওয়ার সময় রুমাল ব্যবহার করুন।
কুসুম গরম পানি পান করতে হবে।
ঘরের ধুলা পরিষ্কার করে রাখতে হবে।
আঙ্গুল দিয়ে ঘন ঘন নাক অথবা চোখ চুলাকানো যাবে না।
নিয়মিত হালকা ব্যায়াম করতে হবে।
পরিবারের কেউ ঠণ্ডা জ্বরে আক্রান্ত হলে অন্যদের সাবধানে রাখুন। ভাইরাল ফিভারের সময় আক্রান্ত ব্যক্তির সঙ্গে খুব ঘনিষ্ঠভাবে মেলামেশা না করাই ভালো। আর ছোটরা এবং বৃদ্ধদের শরীরে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকে। এদের জন্য নিতে হবে বাড়তি সতর্কতা।
মনে রাখবেন সাধারণ ঠাণ্ডা দীর্ঘদিন না সারলে তা থেকে কোনো জটিল রোগ দেখা দিতে পারে। তাই উপসর্গগুলো দ্রুত সমাধান না হলে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিন।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft