আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
শিরোনাম: যশোরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৪২ মামলা, ৪২ জনের জেল       করোনা নিভিয়ে দিল ফকির আলমগীরের জীবন প্রদীপ       হল না সিরিজ জয়, পরাজয়ের কারণ জানালেন মাহমুদউল্লাহ       যশোর পৌরপার্কের পুকুরে ক্যাডেট কলেজ পড়ুয়া এক ছাত্র নিখোঁজ        যশোর ঝিগরগাছায় স্বাস্থ্য বিভাগের অভিযান তিন প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা       ডুমুরিয়ায় পানিতে ডুবে 'ভাই-বোনের মৃত্যু       যশোরে জাসদ নেতার বোনের মৃত্যু : শোক       ডাক্তার এমদাদুল হক আর নেই, শোক        ১৮ হচ্ছে করোনা টিকা নেয়ার বয়সসীমা        যশোরে করোনায় আরও ৬ মৃত্যু, কমেছে পরীক্ষা ও শনাক্তের সংখ্যা       
নো পিসার হাই হইয়ে যাচ্চে!
Published : Tuesday, 13 July, 2021 at 9:43 PM, Count : 134
বচর চারিক আগে পেত্তম যকন চিটি লিকা ইস্টাট দিলাম পেত্তেক দিন মনে হইতো এইডেই মনে হয় শেষ চিটি। মুক্কু সুক্কু মানুস জ্ঞানের বহর খাটো আমার মতো খেড়ি খুদা বকশোর চিটি কিডা আর পড়বে। কেউ না পড়লি হয়ত গিরামের কাগজ কত্তিরপক্কও আস্তের কইরে কইয়ে দেবে চিটি আর না লিকলি ভালো হয়। কিন্তুক কেন জানিনে আমিও চিটি লিকে আমুকো হয়নে, আর যারা পড়েন তারাও আমুকো হননা।
হ্যামন কোন দিন নেই যে চিটি পইড়ে দু’দশজন মুবাল করেন না। কল কইরে কেউ খালি হাসেন, কেউ উসসাহ দেন, কেউবা আবার দেন পরামশশো। আগে সব ফটকা ভাইপোরা কল কইত্তো, একন সুধীজনরাও মুবাল কইরে কতা কন। মাজেমদ্দি আবেগের কচনে ডাবি মাইরে থাকি। কি কতি কি কবানে প্যাটে বিদ্যে নেই থইলের বিলেই বাইরোয় পড়বেনে সেই ভয়তে। অনেকের ভালবাসায় যিরাম ভালো লাগে, সিরাম মাজে মদ্দি আবার লজ্জায়ও পড়তি হয়। গিরামের লোকজন একন মনে করে আমি হটাস কইরে না জানি কি এট্টা হইয়ে গিচি। পিপারে কাজ কত্তিচি, একন আমার বিশ্বঘাতি পাওয়োর।
সেদিন ভাঙ্গা সাইকেল প্যাডেল মাইরে গিরামের কাগজে আসতিচি, এক মুরুব্বী পাচেত্তে ডাক দিয়ে কলে, ওগো বাপু, এট্টু দাড়াও দিনি। আমি সাইকেল থামায়ে উলতি গেচি, তিনি আমার মুকির দিকি ভালো কইরে তাগায়ে কচ্চে, শুনতি পালাম তুমি নাই সুম্বাদিক কত্তিচাও! আমি তো লজ্জায় আকাটা মাইরে গিলাম। কলাম কইলে কি ! সারেদিন দুডো চাড্ডে শব্দ কুড়োয় কাড়ায় নিয়ে এককান কুচো চিটি লিকি মাত্তর। কিন্তুক তুমারে এ কতা কিডা রটালে ? তিনি কলেন আমি এট্টা ঝামেলীতি পড়িচি, স¹লি কচ্চে তুমারে কলিই কাজ হবেনে। তাই তুমারে সেই বিয়েন বেলাত্তে তলাশ কত্তিচি। আমার এট্টা সুরাহা কইরে দেওদিনি বাপু। ইবার আমি আরো আকাটা হইয়ে গিলাম।
পিরায় দিনই নানান মানুস তাগের সমিস্যা নিয়ে আমারে মুবাল করেন। তাগের ধারনা আমি চিটি লিকলিই তাগের সমিস্যার সুমাধান হইয়ে যাবে। দিনকে দিন মানুস জনের যে আশা আমার উপর বাড়তেচে আমি কি তাগের সেই সুম্মান রাকতি পারবো কিনা ভাবদি গেলিই নো পিসার হাই হইয়ে যাচ্চে।
ইতি-
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft