দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: শ্যামনগরে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে নারীবান্ধব সেবাকেন্দ্র       ‘মানবাধিকার লঙ্ঘনকে অপপ্রচারের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে’       ১৬ দিনে এলো ১১৭ কোটি ১০ লাখ ডলার রেমিট্যান্স       আলজেরিয়ার দাবানলে ২৬ জনের মৃত্যু       প্রাইভেটকারের ভেতর থেকে শিক্ষক দম্পতির লাশ উদ্ধার       ২২৯ যাত্রী নিয়ে ঢাকা থেকে বিমান গেল চীনের গুয়াংজু       দাদন ব্যবসায়ীর বিচার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন: স্মারকলিপি পেশ       লালপুরে রেললাইনের ধার থেকে ট্রেনে কাটা লাশ উদ্ধার        পটিয়ায় মাকে গুলি করে হত্যা : ছেলে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার       কুষ্টিয়ায় ফিলিং স্টেশনে অগ্নিকাণ্ডে মৃত্যু বেড়ে ৪      
স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না অধিকাংশ মানুষ
যশোরে মৃত্যুর সংখ্যা আবারো ঊর্ধ্বমুখী
স্বপ্না দেবনাথ ও আশিকুর রহমান শিমুল
Published : Saturday, 17 July, 2021 at 9:16 PM, Count : 620
যশোরে মৃত্যুর সংখ্যা আবারো ঊর্ধ্বমুখীকোরবানি ঈদের আগে স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করে রাস্তা ও শপিংমলে জন¯্রােত সৃষ্টিকারীদের জন্যে ফের সতর্ক বার্তা দিলো করোনা। যশোরে আবারো মৃত্যুর সংখ্যা ঊর্ধ্বমুখী। গত তিনদিন জেলায় মৃত্যুর সংখ্যা আটের নীচে থাকলেও শনিবার ১৫ জনে গিয়ে দাঁড়ায়। এরমধ্যে করোনায় ১০ জন ও উপসর্গে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। সচেতনতার সাথে দিন পার না করলে পরিস্থিতি যে কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে তা অনুমান করা কঠিন নয় বলে মনে করছেন সচেতন মহল।
যশোর আড়াইশ’ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আরিফ আহমেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে রেডজোনে ১০ ও ইয়োলোজোনে পাঁচজন রয়েছে। রেডজোনে বর্তমানে ভর্তি আছেন একশ’ ৬২ জন। ইয়োলোজোনে উপসর্গ নিয়ে ভর্তি আছেন ৬৭ জন।
গত ১০ জুলাই থেকে ১৭ জুলাই পর্যন্ত যশোরে করোনা ও এর উপসর্গে মৃত্যু হয়েছে ৯৪ জনের। এখনো পর্যন্ত বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি হাসপতালসহ বাড়িতে চিকিৎসাধীন আছেন ৬ হাজার সাতশ’ ৩১ জন। এরমধ্যে যশোর পৌর এলাকায় গত ১১ থেকে ১৫ জুলাই পর্যন্ত নতুন করে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা তিনশ’ আটজন।
সিভিল সার্জন শেখ আবু শাহীন জানান, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে চারশ’ ৮০ টি নমুনা পরীক্ষা করে একশ’ আটজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার কমলেও কমেনি মৃত্যুর সংখ্যা। আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলায় ৭০, ঝিকরগাছায় ১০, চৌগাছায় ১০, মণিরামপুরে ছয়, অভয়নগরে তিন, বাঘারপাড়ায় এক ও শার্শায় আটজন রয়েছে। জেলায় শনাক্তের হার প্রায় ২৫ শতাংশ। এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছে ১৬ হাজার আটশ’ ছয়জন। সুস্থ হয়েছেন নয় হাজার সাতশ’ ৮২ জন। মৃত্যু হয়েছে দুইশ’ ৬৩ জনের।
যশোরে যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের প্রতি আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না জনসাধারণের মধ্যে।  
হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, রোগী ও তাদের স্বজনরা স্বাস্থ্যবিধি মানতে নারাজ। করোনার নমুনা দেয়ার জন্যে রেজিস্ট্রেশন ও সংগ্রহ বুথে রোগীর দীর্ঘ লাইন। সেখানে স্বাস্থ্যবিধি মানার কোনো বালাই নেই।
এ সময় কথা হয় আজগর আলী নামে এক ব্যক্তির সাথে। তিনি জানান, গত ১৪ জুলাই হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার জন্যে নমুনা দিয়েছেন। ১৭ জুলাই এসেছেন রিপোর্ট নিতে। কিন্তু এখানে এসে দেখেন কেউ স্বাস্থ্যবিধি মানছে না। সকলে বুথের সামনে দাঁড়িয়ে রিপোর্টের একটি কপি নিয়ে টানাটানি করছেন। বহু কষ্টে রিপোর্টের কপি হাতে পেয়ে তিনি জানতে পারেন তার করোনা পজিটিভ। তার মতো একাধিক করোনা পজিটিভ রোগী রিপোর্টের জন্যে বুথের সামনে অপেক্ষা করেন।
তিনি আরও জানান, যদি সময় মতো তার মোবাইল ফোনে মেসেজ যেতো তাহলে তিনি রিপোর্টের জন্যে হাসপাতালে আসতেন না। রিপোর্ট পাওয়ার পর জানতে পারেন তিনি করোনায় আক্রান্ত। তার মতো একাধিক করোনা পজিটিভ মানুষ লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন, যা অন্যের জন্যে ক্ষতিকর।
এদিকে, হাসপাতালের পুরুষ ও মহিলা জোনে প্রতিদিন বাড়ছে নতুন আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। এখানে রোগীর স্বজনরা অবাধ যাতায়েত করছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ সকল ওয়ার্ডে রোগীর স্বজনদের যাতায়াত কোনোভাবেই আটকাতে পারছে না। এতে করে এ ওয়ার্ডের রোগী ও আগত স্বজনরা চরম স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছেন।
হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার আকতারুজ্জামান জানান, গত তিনদিন রোগী মৃত্যুর সংখ্যা কম থাকলেও হঠাৎ তা বৃদ্ধি পেয়েছে। সকলকে নিজের রক্ষা নিজেকেই করতে হবে। তা একমাত্র সম্ভব স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে। হাসপাতালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্যে টিকিট কাউন্টার ও বহির্বিভাগের সামনে মাইকে ঘোষণা করা হচ্ছে। রেডজোনে কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছেনা। ইয়োলোজোনের ব্যাপারেও কঠোর হবে হাসপাতাল প্রশাসন। করোনা ও উপসর্গ থাকা রোগীদের চিকিৎসা সেবায় যে কোনো পরিস্থিতি সামাল দিতে প্রস্তুত রয়েছে তারা।  




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft