দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: বিশ্বকাপের স্বপ্ন বেঁচে রইলো বাংলাদেশের       যশোরাঞ্চলে কঠোর নজরদারি       প্রাইম ব্যাংকের ব্যবস্থাপককে হাজির হবার নোটিশ       যশোরে নবাগত ৩৭ জন আইনজীবীকে সংবর্ধনা       চাকরির নামে সাড়ে ১৬ লাখ টাকা প্রতারণায় নারীর বিরুদ্ধে মামলা       পিচের রাস্তায় ইটের সলিং       কেশবপুরে মানববন্ধন       পরিত্যক্ত ভবনে চলছে স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম, দুর্ঘটনার আশংকা        কারেন্ট পোকার আক্রমণে আমন ধান নষ্ট, দিশেহারা কৃষক       তালা ভূমি অফিসের কর্মচারীরের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ       
সাড়াপোল মাধ্যমিক বিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টা ধামাচাপা দিতে তৎপর প্রভাবশালীরা
শিমুল ভূইয়া
Published : Saturday, 18 September, 2021 at 9:15 PM, Count : 1477
সাড়াপোল মাধ্যমিক বিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টা ধামাচাপা দিতে তৎপর প্রভাবশালীরাযশোর সদর উপজেলার চাঁচড়া ইউনিয়নের সাড়াপোল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানী ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে প্রতিষ্ঠানের দপ্তরি লুৎফর রহমানের বিরুদ্ধে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি ধামাচাপা দিতে তৎপর হয়ে উঠেছে একটি চক্র। ভিকটিম পরিবারকে দেয়া হচ্ছে নানা ধরনের হুমকি। পরিবারটিকে অনেকটা একঘরে করে রাখা হয়েছে বলে দাবি করেছেন ভিকটিমের বাবা। স্থানীয়রা বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
শনিবার সরেজমিনে ভিকটিমের বাড়ি যেয়ে কথা হয় ওই কিশোরীর সাথে। সে বলে, ১ সেপ্টেম্বর সে রেজিস্ট্রেশনের জন্য স্কুলে গেলে দপ্তরী লুৎফর বই দেয়ার জন্য তাকে লাইব্রেরিতে ডাকেন। লাইব্রেরিতে গেলে দপ্তরি তার শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। এর প্রতিবাদ করে সে বাড়িতে চলে যায়। এরপর গত ৫ সেপ্টেম্বর লুৎফর তাদের বাড়িতে এসে জানান, প্রধান শিক্ষক তাকে ডাকছেন। ফের লাইব্রেরিতে যেতে বলে লুৎফর। লাইব্রেরিতে যাওয়ার সাথে সাথেই লুৎফর দরজা আটকে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় কিশোরী চিৎকার দিলে লুৎফর তাকে ছেড়ে দেন। সে দৌড়ে স্কুল থেকে বেরিয়ে বাড়িতে চলে আসে।
ভুক্তোভোগীর মা জানান, ঘটনার পর ওই দিনই প্রধান শিক্ষকের কাছে অভিযোগ দেয়া হয়। বিষয়টি স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির কাছেও জানানো হয়। কিন্তু তারা তাৎক্ষণিক কোনো ব্যবস্থা নেননি। অভিযোগ দেয়ার পর উল্টো হুমকি দেয়া হচ্ছে। বাড়ির ওপর লোকজন এসে বলছে, এ বিষয়ে থানা পুলিশ করলে ফল ভালো হবেনা।
ভিকটিমের বাবা জানান, ৫ সেপ্টেম্বর স্কুলে অভিযোগ দেয়া হলেও প্রধান শিক্ষক ও সভাপতি বিষয়টি নিয়ে গড়িমসি শুরু করেন।
স্কুলের প্রধান শিক্ষক পাপিয়া সুলতানা বলেন, গত ৫ সেপ্টেম্বর দপ্তরি লুৎফরের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ এসেছে। ১২ মার্চ লুৎফরকে কারণ দর্শানোর নোটিস দিয়ে সাত দিনের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে। জবাব সন্তোষজনক না হলে তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এদিকে, অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য নিতে শনিবার বেলা সাড়ে ১২টায় স্কুলের পেছনেই দপ্তরি লুৎফরের বাড়িতে যায় গ্রামের কাগজের টিম। সাংবাদিক আসার খবর শুনে পালিয়ে যান লুৎফর। এসময় তার স্ত্রী ও ছেলের সাথে কথা হয়। তারা জানান, পাশের মাঠে আছেন লুৎফর। ‘ডেকে আনছি’ বলে এক ছেলে বেরিয়ে যান। সাড়ে ১২টা থেকে দুপুর সাড়ে তিনটা পর্যন্ত ওই এলাকায় অপেক্ষা করলেও লুৎফর ও তার ছেলে কেউই ফিরে আসেনি।  এসময় লুৎফরের স্ত্রী ও পুত্রবধূ লুৎফরকে নির্দোষ দাবি করেন। বিষয়টি ষড়যন্ত্র বলেও দাবি করেন তারা।
স্থানীয় কয়েকজন জানান, সাড়াপোল স্কুলে এ ধরনের ঘটনা এর আগেও ঘটেছে। কিন্তু স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা প্রতিবারই ধামা চাপা দিয়ে দেয়। অনেকে মুখ খোলার সাহসও পায়না। এলাকাবাসী বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। একইসাথে লুৎফরের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি কামনা করেন।
মণিরামপুর থানার ওসি (তদন্ত) মতিয়ার রহমান বলেন, এ বিষয়ে তাদের কাছে কেউ অভিযোগ দেননি। 




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft