আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
শিরোনাম: ৬ রানের হার দিয়েই বিশ্বকাপ শুরু বাংলাদেশের       ফরিদ আহমেদ চৌধুরী, শান্তসহ নবনির্বাচিতদের শপথ       বিশ্বে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ৪৯ লাখ পার       খালী কলসি বাজে বেশী ভরা কলসী বাজে না       কোচিং থেকে ছেলে নিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না শাহাজানের       দুই মাদক কারবারীকে আটক করেছে র‌্যাব       ষষ্টিতলা ও খড়কির দুটি চক্রে উত্তেজনা        বেজপাড়ায় ১০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরির অভিযোগ        কুয়াদা থেকে ভুয়া কবিরাজ আটক       যবিপ্রবিতে গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন      
ডিম নিয়েও দিন, আলাম কনে মলাম যে!
Published : Saturday, 9 October, 2021 at 9:05 PM, Count : 136
কুটিকালে জানতাম বারোহাত কাকড়ের তেরহাত বিচি। আর একন শুনি তিনশ পয়ষট্টি দিনি সাতশ পয়ষট্টি দিবস। ইরামও দিন আচে খালি জাগা না পাইয়ে একদিনি তিন চাড্ডে কইরেও দিবস পড়ে। যিরাম পশশুদিন গ্যালো ডিম দিবস। অনেক গুড়ুলে ছিলেপিলে পরীক্কেয় গুল্লা পালি মাইস্টের খাতা দিয়ার দিন বাটাম টাইনতো ডিম পালি ক্যান কইয়ে।
অনেকে মুকি শুনিচি পরীক্কে দিয়ার দিন ব্যানবেলা নাস্তায় ডিম খাতি বারন দিতো। কারন নাই ডিম খাইয়ে গেলি রিজাল্টও ডিম হইয়ে যাতি পারে। তেবে ডিম দিবসে জানতি পাল্লাম এই ডিম আসলেই আসল ডিম যা মানুষ খাইয়ে থাকে। অনেকেই কইয়ে থাকেন ডিম হচ্চে গরীবির গোস্ত। তার মানে হেজেমানে কল্লি দাড়ায় যাইগের গোস্ত কিনে খাওয়া ক্ষেমতা নেই, তারা কুটুম সাক্কেত আসলি কিম্বা বিশেষ কোন দিনি ডিম দিয়েই গোস্তের চাহিদা মিটোয়। তেবে ডিমির কতা মনি হলি এট্টা কতা মনের মদ্দি খুচুত কইরে ওটে। আমাগের কুটিকালে আস্ত ডিম কবে খাইচি মনে পইড়তো না। মা ডিম রানলি খাওয়ার সুমায় চামুচ দিয়ে কাইটে দেতেন। কপাল ভালো হলি আদ্দেক পাতাম আর লোক দেড়ি হলি চারভাগের একভাগ। ইরামও দিন গেচে ডিম রান্দার আগে সেদ্দ ডিম ছুইলে দিয়ার জন্যি বইসে যাতাম। উসলোত এট্টাই ডিমির খুসার সাতে ডিম ভাইঙ্গে উইটে আসলি সিডা হজমি করা।
একনকের ছিলেপিলে এর মর্ম বোঝবে না। ফারমের কুকড়ো আইসে ডিমির চাহিদা অনেক মিটোয় ফেলায়েচে। মন চালিই একন ডিম য্যানে স্যানে পাওয়া যায়। হয়ত দামডা এট্টা কম বেশ হয় এই যা। ডিম পাওয়া হ্যাতো সহজ হইয়ে গেচে, একবার এক কুকড়ো বাজারে গেচে ডিম কিনতি। যাইয়ে দুকানদাররে কচ্চে, ম্যা’ভাই এট্টা ডিম দেন দিনি। কুকড়ো ডিম কিনতি আইয়েচে দেইকে দুকানদারের মিজাজ খাররা। কচ্চে কুকড়ো হয়ে আইচিস ডিম কিনতি, তোর লজ্জা করে না। কুকড়ো কচ্চে খদ্দের লক্কী, ডিম কিনতি আসার মদ্দি লজ্জাডা কনে। দুকানদার কচ্চে, কুকড়ো হইয়ে ডিম কিনতি আইচিস ক্যান পাইড়ে নিতি পারিস নে। কুকড়ো কচ্চে, আমার বর মোরগ কইয়েচে মাত্তর নয় দশ টাকার এট্টা ডিমির জন্যি নিজির ফিগার নস্ট কইরে লাভ নেই। তাই কিনতি আইচি!
তেবে ডিম দিবসে এট্টা বিজ্ঞপন খুব মনে ধইরেচে। একজন লিকে রাইকেচে, আসল ডিম পাতি চান তালি গু লাগানো ডিম কেনেন।
ইতি-
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft