দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: ৬ রানের হার দিয়েই বিশ্বকাপ শুরু বাংলাদেশের       ফরিদ আহমেদ চৌধুরী, শান্তসহ নবনির্বাচিতদের শপথ       বিশ্বে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ৪৯ লাখ পার       খালী কলসি বাজে বেশী ভরা কলসী বাজে না       কোচিং থেকে ছেলে নিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না শাহাজানের       দুই মাদক কারবারীকে আটক করেছে র‌্যাব       ষষ্টিতলা ও খড়কির দুটি চক্রে উত্তেজনা        বেজপাড়ায় ১০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরির অভিযোগ        কুয়াদা থেকে ভুয়া কবিরাজ আটক       যবিপ্রবিতে গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন      
যশোর-চুকনগর সড়ক ৩৪ ফুটের ডাবল লেনে উন্নীত হচ্ছে
শত কোটি টাকা ব্যয়ে চলছে কর্মযজ্ঞ
জাহিদ আহমেদ লিটন
Published : Tuesday, 12 October, 2021 at 11:49 PM, Update: 12.10.2021 11:54:51 PM, Count : 440
শত কোটি টাকা ব্যয়ে চলছে কর্মযজ্ঞপ্রায় শত কোটি টাকা ব্যয়ে যশোর-চুকনগর মহাসড়ক উন্নয়নে ব্যাপক কর্মযজ্ঞ পরিচালিত হচ্ছে। সড়কটি নতুন করে ভিতের মাধ্যমে ডাবল লেনে ৩৪ ফুটে উন্নীত হচ্ছে। গত এক বছরের অধিক সময় যাবৎ সড়কের আটত্রিশ কিলোমিটার জুড়ে এ উন্নয়ন কর্মকান্ড চলছে। এ কাজ শেষ হলে যশোর থেকে সাতক্ষীরা রুটে চলাচলকারী যাত্রীদের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাঘব হবে।
যশোর সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, যশোরের মণিরামপুর ও কেশবপুর হয়ে খুলনার চুকনগর পর্যন্ত সড়কটির দৈর্ঘ্য ৩৮ দশমিক ২৬৫ কিলোমিটার। সাতক্ষীরার ভোমরা সীমান্তের আমদানিকৃত মালামাল নিয়ে ট্রাকগুলো এ সড়ক দিয়ে যশোর হয়ে রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় চলাচল করে। এছাড়া সড়কটিতে ঢাকাগামী পরিবহন, ট্রাক, মাইক্রোবাস, প্রাইভেট কারসহ বিপুল সংখ্যক যানবাহন যাতায়াত করে থাকে। যানবাহনের চাপে সড়কটি বছরের বেশিরভাগ সময় ভাঙাচোরা অবস্থায় থাকে। যার ফলে কর্তৃপক্ষকে প্রতি বছরই সড়কটি সংস্কার করে যান চলাচলের উপযোগী করতে হয়। কয়েক দফা সংস্কার করার পরও ২০২০ সাল নাগাদ সড়কটির অধিকাংশ স্থান ভেঙে খানা-খন্দে পরিণত হয়। এরপর বাস্তব অবস্থা বিবেচনায় এনে যশোর সড়ক ও জনপথ বিভাগ কর্তৃপক্ষ সড়কটি উন্নয়নের মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করেন। এরই প্রেক্ষিতে সড়কটি নতুন করে ভিত নির্মাণের মাধ্যমে ডাবল লেনে ১০.৩০ মিটার বা ৩৪ ফুটে উন্নীত করার প্রকল্প একনেকে পাস হয়। প্রাথমিকভাবে সড়কের রাজারহাট থেকে খুলনার চুকনগর পর্যন্ত প্রকল্প ব্যয় ধরা হয় ৯০ কোটি ৯২ লাখ ৭১ হাজার ৯৪৪ টাকা। পরবর্তীতে টেন্ডারের মাধ্যমে এ কাজটি পায় যশোরের ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিেিটড। যার নির্বাহী পরিচালক শহরের ঘোপ জেল রোডের মঈনউদ্দিন (বাঁশি) লিমিটেড (জেভি)। আটত্রিশ কিলোমিটার এ সড়কের পুন:নির্মাণের সময়কাল বেধে দেয়া হয় এক বছর ছয় মাস। যা ২০২০ সালের ২০ জুলাই থেকে শুরু হয়ে শেষ হবে ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ সালে।
সূত্র জানায়, যশোর-চুকনগর সড়ক উন্নয়ন কাজের মধ্যে রয়েছে ১১.০৬০ কিলোমিটার সড়ক প্রশস্তকরণ ও মজবুতিকরণ, রিজিড পেভমেন্ট এক হাজার তিনশ’ ফুট, সড়কে তিনটি বক্স কালভার্ট নির্মাণ, আরসিসি পিটসহ ইইউ ড্রেন নির্মাণ দুই হাজার ৬শ’ ফুট, রক্ষাপ্রদ কাজ (আরসিসি প্যালাসাইডিং) দুই হাজার ৫৬৭ ফুট, ইন্টারসেকশন একটি ও একটি দ্বিতল অফিস ভবন নির্মাণ। যার পরিধি হবে ১৫শ’ স্কয়ার ফুট। যশোর সড়ক বিভাগের আওতাধীন এ কাজ গত এক বছরের অধিক সময় চলমান থাকলেও নির্ধারিত সময়ে শেষ হবে কিনা তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে ঠিকাদারসহ স্থানীয়দের। ঠিকাদার এ কাজে আধুনিক যন্ত্রাংশ সমৃদ্ধ গাড়ি, স্কেভেটর ও রোলার ব্যবহার করছে। তারপরও এ কাজ ধীর গতিতে চলছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। সড়কের উন্নয়নের জন্য পার্শ্ববর্তী ব্যবসায়ীসহ বসবাসকারীরা গত দেড় বছর যাবৎ চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। সড়কের বালি ও ধূলিঝড় তাদের নিত্য ঘটনায় পরিণত হয়েছে। এছাড়া এ সড়ক পথে মানুষ ও যানবাহন চলাচলেও ব্যাপক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়া, নির্মাণ কাজেও নানা অসঙ্গতি রয়েছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। তারা বলেছেন, সড়ক থেকে উঠানো পুরনো খোয়া ফের নতুন নির্মাণ কাজে ব্যবহার করছে ঠিকাদার।
এদিকে, সড়কের ৩৮ কিলোমিটার প্রশস্তকরণে সদরের কুয়াদা, মণিরামপুর ও কেশবপুরসহ তিনটি উপজেলার অর্ধশত বাজারে দোকানপাট ভাঙচুর করা হয়েছে। সড়কটি আগের থেকে ১৬ ফুট প্রশস্ত করার জন্য ইতিমধ্যে দু’পাশের অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ করা হয়েছে। এসব ঘটনায় ব্যবসায়ীদের মাঝে ক্ষোভ রয়েছে।
এ ব্যাপারে যশোর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, যশোর থেকে চুকনগর সড়কটি ১৮ ফুটের স্থলে ৩৪ ফুটে উন্নিত করা হচ্ছে। এটি মূলত ডাবল লেন হচ্ছে। তারা সড়কের কাজে যথাযথ তদারকি করছেন এবং টেন্ডারের নিয়মানুযায়ী ঠিকাদার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। এ ক্ষেত্রে অনিয়মের কোন সুযোগ নেই। এ কাজে সড়ক বিভাগের কয়েকজন ইঞ্জিনিয়ার উপস্থিত থেকে কাজ তদারকি করছেন বলে তিনি জানান।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft