ওপার বাংলা
শিরোনাম: চুড়ামনকাটিতে আ’লীগের প্রতিপক্ষ থাকতে পারেন স্বতন্ত্র প্রার্থী       উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে ভালোর আশায় শেষ হলো টাউনহল মাঠের গণসংগীত উৎসব       জেলা পুলিশ ও সেনাবাহিনীতে চাকরির নামে প্রতারণা       খালেদা জিয়াকে বিদেশে না পাঠালে পালানোর পথ খুঁজে পাবেন না       কেশবপুরে শিশু রত্না হত্যা মামলায় দাদার বিরুদ্ধে চার্জশিট       ঘের থেকে কৃষকের মরদেহ উদ্ধার       যশোরের ৩৫ ইউনিয়নে ভোট রোববার       স্ত্রীকে হত্যার দায়ে আটক       ফরিদপুরে গ্রাম্য ডাক্তারকে মারপিট        জয়তী সোসাইটির মানববন্ধন       
কৃষি আইন বাতিলের ঘোষণায় মমতার অভিনন্দন
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 19 November, 2021 at 6:35 PM, Count : 58
কৃষি আইন বাতিলের ঘোষণায় মমতার অভিনন্দনকৃষকদের প্রায় এক বছরের আন্দোলনের পর অবশেষে প্রত্যাহার করা হলো ২০২০ সালে পাশ হওয়া বিতর্কিত তিন কৃষি আইন। শুক্রবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জাতির উদ্দেশে ভাষণে কৃষি আইন প্রত্যাহারের কথা ঘোষণা দিয়েছেন।
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কৃষকদের অভিনন্দন জানিয়ে এক টুইটে লিখেছেন, এই জয় তাদেরই। অনড় মনোভাব দেখানোর পরও কেন্দ্রের শাসকের এই পিছু হঠায় আন্দোলনের জয়ই দেখছেন বিরোধীরা। গণতন্ত্রের জয়ের কথা বলে রাজ্যের শাসকদলের নেতারা খোঁচা দিতে ছাড়েনি কেন্দ্রের শাসকদলকে।
শুক্রবার সকালে করা টুইটে মমতা লিখেছেন, বিজেপি কৃষকদের প্রতি নৃশংস। কিন্তু তার বিরুদ্ধে যেসব কৃষক নিরন্তর লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন তাদের প্রত্যেককে আমার অভিনন্দন। এটা আপনাদের জয়। এই লড়াইয়ে যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের প্রতি আমার শ্রদ্ধা।
মোদী আইন প্রত্যাহারের ঘোষণা করতেই বিজেপিকে খোঁচা দিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। এই সাংসদের মতে, কৃষি আইন প্রত্যাহার আসলে দেশের গণতন্ত্রের জয়। দিল্লি সীমানায় গত বছর থেকে আন্দেলন চালিয়ে যাচ্ছেন কৃষকরা। বিজেপি সেই আন্দোলন ভাঙার অনেক চেষ্টা করেছিল। কিন্তু পারেনি। এটাই গণতান্ত্রিক শক্তি।
এরপরই বিজেপির উদ্দেশে খোঁচা দিয়ে বলেছেন, সামনে পাঁচ রাজ্যে নির্বাচন রয়েছে। নির্বাচনে ভরাডুবির ভয়েই বিতর্কিত কৃষি আইন প্রত্যাহার করলেন মোদী। সাংসদের অধিবেশনে বিক্ষোভ এড়াতেই আগেভাগে এই ঘোষণা করা হলো বলে মনে করেন তিনি।
একই সুর শোনা গেছে তৃণমূলের অপর সাংসদ সুখেন্দশেখর রায়ের কথাতেও। তিনিও মনে করেন নির্বাচনের চাপেই বিজেপির এই পিছু হঠা।
সুখেন্দুশেখর বলেছেন, আসন্ন পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনের কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বিজেপি হারতে চলেছে তা বুঝতে পেরেই এই সিদ্ধান্ত। দেরিতে হলেও বোধহয়। মোদীর ঘোষণার পরই কৃষি আইন প্রত্যাহার নিয়েই একাধিক টুইট করেছেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ওব্রায়েন।
প্রথম টুইটেই খোঁচা দিয়েছেন তিনি লিখেছেন, অহংকারের হার। অহঙ্কারের হার, অতিরিক্ত গর্ব থেকে ভূপতিত। তবে শুধু খোঁচা দিয়েই ক্ষান্ত হননি ডেরেক। তৃণমূলের সাংসদেরা বিভিন্ন সময় এই তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবি জানিয়েছিলেন। তৃণমূল সাংসদদের ধরনার একটি ছবি বৃহস্পতিবার টুইট করে সে কথা মনে করিয়েছেন ডেরেক।
মমতা, ডেরেকের পর কৃষি আইন প্রত্য়াহার নিয়ে টুইট করেছেন ফিরহাদ হাকিমও। তার মতেও এই জয় কৃষকদের। তৃণমূলের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডল থেকেও করা হয়েছে একটি টুইট। সেখানে লেখা, ‘জয় কিসান!’




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft