দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: চুড়ামনকাটিতে আ’লীগের প্রতিপক্ষ থাকতে পারেন স্বতন্ত্র প্রার্থী       উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে ভালোর আশায় শেষ হলো টাউনহল মাঠের গণসংগীত উৎসব       জেলা পুলিশ ও সেনাবাহিনীতে চাকরির নামে প্রতারণা       খালেদা জিয়াকে বিদেশে না পাঠালে পালানোর পথ খুঁজে পাবেন না       কেশবপুরে শিশু রত্না হত্যা মামলায় দাদার বিরুদ্ধে চার্জশিট       ঘের থেকে কৃষকের মরদেহ উদ্ধার       যশোরের ৩৫ ইউনিয়নে ভোট রোববার       স্ত্রীকে হত্যার দায়ে আটক       ফরিদপুরে গ্রাম্য ডাক্তারকে মারপিট        জয়তী সোসাইটির মানববন্ধন       
আরবপুরে আওয়ামী লীগই আওয়ামী লীগের প্রতিদ্বন্দ্বী
কাগজ সংবাদ
Published : Tuesday, 23 November, 2021 at 9:26 PM, Count : 648
আরবপুরে আওয়ামী লীগই আওয়ামী লীগের প্রতিদ্বন্দ্বীযশোর সদর উপজেলার রাজনীতির মাঠে এখন শুধুই ভোটের আলোচনা। কবে তফশিল, কবে ভোট ইত্যাদি বিষয় ছাপিয়ে সবচেয়ে বড় আলোচনা,কে হচ্ছেন নৌকার প্রার্থী। বিশেষ করে আরবপুর ইউনিয়নে এ প্রশ্ন সবচেয়ে বেশি করে উঠেছে। কারণ, শহর ঘেঁষা এ ইউনিয়নে বিএনপি কিংবা অন্য কোনো রাজনৈতিক দলের কোনো প্রার্থী এখনো পর্যন্ত খুঁজে পাওয়া যায়নি। এখানে আওয়ামী লীগই আওয়ামী লীগের প্রতিদ্বন্দ্বী। বর্তমান চেয়ারম্যানসহ অন্তত আটজন নেতা আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হতে মাঠে রয়েছেন।
মুক্তেশ্বরী নদীর পাশে আরবপুর ইউনিয়ন শুধু যশোর শহর ঘেঁষাই না, এই ইউনিয়নে রয়েছে সেনানিবাস ও বিমান বন্দরের অবস্থান। ইউনিয়নে প্রায় ৬০ হাজার মানুষের বাস। বর্তমান ভোটার ৩২ হাজারের কিছু বেশি। তার মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছেন ১৬ হাজার ১শ’ ৯৮ জন। নারী ভোটার ১৫ হাজার ৯শ’ ৫জন। ২০১৬ সালের নির্বাচনে এ ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। তিনি যশোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক। তার আগে আরবপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান ছিলেন বিএনপি নেতা সিরাজুল ইসলাম। গত নির্বাচনে মনোনয়নপত্র কিনলেও তিনি তা প্রত্যাহার করে নেন। এবার আর ভোট করবেন না বলে শোনা যাচ্ছে।
বর্তমান চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম বলেন, বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার আমলে রাজনৈতিক কারনেই বহু জেল জুলুম হুলিয়ার শিকার হয়েছেন তিনি। তাকে মেরে ফেলার চেষ্টাও করা হয়েছে বলে তার দাবি। এসব বিবেচনায় এনে ২০১৬ সালের নির্বাচনে দল তাকে নৌকা প্রতীক দেয় এবং তার জনপ্রিয়তায় ভীত হয়ে আর কেউ প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করায় তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। এ ইউনিয়নে তিনি ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন বলে দাবি করেন। করোনাকালীন মানুষের সেবায় ব্যাপক ভূমিকা রেখেছেন বলেও দাবি তার। যেসব কারণে দল আবারও তাকে নৌকা দেবে বলে শাহারুল ইসলাম আশাবাদী।
আরবপুর ইউনিয়নে এবার শাহারুলের বিপক্ষে নির্বাচন করার প্রস্তুতি নিয়েছেন আওয়ামী লীগের বিভিন্ন স্তরের অন্তত সাতজন নেতা। তারা বলছেন, নানা অভিযোগে শাহারুল আর নৌকা পাচ্ছেন না। তারা শাহারুল ইসলামের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অন্যায়-অবিচারের অভিযোগ তুলছেন। তারা বলছেন, শাহারুল ব্যতীত অন্য যে কাউকে নৌকা প্রতীক দিলে তারা তা মেনে নেবেন। কারণ, এ ইউনিয়নে শাহারুলের কারণে আওয়ামী লীগের রাজনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এখানে সন্ত্রাস আর চাঁদাবাজির রাজত্ব কায়েম হয়েছে।
নৌকা প্রতীক প্রত্যাশী আরবপুরের এসব নেতা হলেন, যশোর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মীর আরশাদ আলী রহমান, যুবলীগ নেতা সাবেক ইউপি মেম্বর শহিদুজ্জামান শহিদ, ফারুক আহম্মেদ বাবু, মিজানুর রহমান মুকুল ও ইকরামুল কবীর রবিউল। যুবলীগ নেতা সাঈদ সরদারও নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী বলে শোনা যাচ্ছে।
এছাড়াও এ মতামতের পক্ষে রয়েছেন বর্ষীয়ান রাজনীতিক আরবপুর ইউনিয়ন পরিষদের একাধিকবার নির্বাচিত সাবেক মেম্বর ও চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান চুন্নু। তিনি বলেন, সাবেক এমপি খালেদুর রহমান টিটোর সাথে তিনি আওয়ামী লীগে যোগ দেয়ার পর টিটো যেমন দলে পদ বঞ্চিত ছিলেন, তেমনি তাকেও অদ্যাবধি আওয়ামী লীগে কোনো মূল্যায়ন করা হয়নি। বর্তমানে তিনি জেলা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।
সাবেক এ চেয়ারম্যান বলেন, আমি দীর্ঘ ১৭ বছর আরবপুর ইউনিয়নে বিভিন্নভাবে জনপ্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করে বুঝি, এখানে কতটা উন্নয়ন হয়েছে আর হয়নি। শহর ঘেঁষা এ ইউনিয়নে উন্নয়ন এবং জনসাধারণের মূল্যায়নের প্রশ্নে তিনি আওয়ামী লীগের কাছে দলীয় মনোনয়ন দাবি করেন।
আরবপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগ। এখানে উভয়পক্ষ একে অপরকে খুনি হিসেবেও সাব্যস্ত করছেন। সরাসরি আঙুল তুলছেন একে অন্যের দিকে। এখন দেখার অপেক্ষা এখানে কে নৌকা পান।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft