দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: ফেসবুক লাইভে পণ্য বিক্রি বন্ধের সিদ্বান্ত নিয়েছে       তেল বিক্রি কমেছে ৩০ শতাংশ        ফজিলাতুননেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকীতে আলোচনা        চায় চালাক হলিই নাই চচ্চড়ায় উন্নতি!       জ্বালানি তেল ও সারের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে জাসদের মানববন্ধন       যশোরে পাশবিক নির্যাতন করে স্ত্রী হত্যার মামলায় স্বামীর ফাঁসির আদেশ       বেশি দামে কেরোসিন বিক্রি করায় ভোক্তার জরিমানা       ‘আইনি প্রক্রিয়ায় র‌্যাবের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে কাজ করছি’       আশা করছি আইজিপি যুক্তরাষ্ট্রে যেতে পারবেন: পররাষ্ট্র সচিব       ‘বাংলাদেশের জলবায়ু বিপজ্জনক হয়ে উঠছে’      
যশোরের ৩৫ ইউনিয়নে ভোট রোববার
শান্তিপূর্ণ করতে কঠোর প্রশাসনিক পদক্ষেপ গ্রহণ
কাগজ সংবাদ
Published : Saturday, 27 November, 2021 at 9:20 PM, Count : 712
যশোরের ৩৫ ইউনিয়নে ভোট রোববারযশোরের শার্শা, বাঘারপাড়া এবং মণিরামপুর উপজেলার ৩৫টি ইউনিয়ন পরিষদের তৃতীয় ধাপের নির্বাচন রোববার। নির্বাচন উপলক্ষে যাবতীয় প্রস্ততি সম্পন্ন করেছে উপজেলা নির্বাচন অফিস, উপজেলা প্রশাসন এবং পুলিশ প্রশাসন। উপজেলাগুলোতে ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র নির্বাচন করে সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও গ্রহণ করা হয়েছে। নির্বাচনের আগে তিন উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে কিছু সহিংস ঘটনার প্রেক্ষিতে নির্বাচন নিয়ে কিছু সংশয় থাকলেও ভোট গ্রহণ শান্তিপূর্ণ হবে বলে আশ্বস্ত করা হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। ৩৫টি ইউনিয়নের মধ্যে বাঘারপাড়ার রায়পুরে ভোট গ্রহণ করা হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে।
শার্শা উপজেলার যে দশটি ইউনিয়নে আজ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে সেগুলো হলো ডিহি, লক্ষণপুর, নিজামপুর, পুটখালী, কায়বা, গোগা, বাগআঁচড়া, শার্শা সদর, নাভারণ এবং বাহাদুরপুর। পৌরসভার সাথে মামলা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে রোববার নির্বাচন হবে না বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদে।
মণিরামপুর উপজেলার ১৭টি ইউনিয়নের মধ্যে ভোট গ্রহণ করা হবে ১৬টি ইউনিয়নে। মামলা সংক্রান্ত জটিলতায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে না হরিহরনগরে। শ্যামকুড় ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ইঞ্জিনিয়ার আলমগীর হোসেন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় এ ইউনিয়নে ভোট হবে শুধু সাধারণ ও সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার পদে। এ উপজেলায় আরও যে ইউনিয়নে আজ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে সেগুলো হলো কাশিমনগর, রোহিতা, খেদাপাড়া, ঝাঁপা, চালুয়াহাটি, ভোজগাতি, ঢাকুরিয়া, হরিদাসকাটি, মণিরামপুর সদর, মশ্বিমনগ, খানপুর, নেহালপুর, দুর্বাডাঙ্গা, কুলটিয়া এবং মনোহরপুর।
অন্যদিকে, বাঘারপাড়ার ইউনিয়নগুলো হলো জহুরপুর, বন্দবিলা, রায়পুর, বাসুয়াড়ি, জামদিয়া, দোহাকোলা, নারিকেলবাড়ীয়া, ধলগ্রাম ও দরাজহাট।
বাঘারপাড়া থেকে স্টাফ রিপোর্টার চন্দন দাস জানিয়েছেন, উপজেলার নয় ইউনিয়নের ৮১টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ করা হবে। এর মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ও গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র রয়েছে ২০টি। মোট ভোট কক্ষের সংখ্যা চারশ’ ৮৫টি। মোট ভোটার এক লাখ ৬৮ হাজার নয়শ’ ৪২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮৫ হাজার চারশ’ ২৭ ও নারী ভোটার ৮৩ হাজার পাঁচশ’ ১৫ জন। নির্বাচনের জন্য ৮১ জন প্রিজাইডিং অফিসার, চারশ’ ৮৫ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং নয়শ’ ৭০ জন পোলিং এজেন্ট নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তবে প্রথমবারের মতো এবার রায়পুর ইউনিয়নে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ হবে।
বাঘারপাড়ায় নির্বাচনে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে মাঠে নেমেছে বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা। ৮১টি ভোট কেন্দ্রে দ্বায়িত্ব পালন করবেন ছয়শ’ ৩৪ জন পুলিশ, এক হাজার তিনশ’ ৭৭ জন আনসার। এছাড়া পুলিশের ১৮টি মোবাইল টিম, ৩ প্লাটুন বিজিবি, র‌্যাবের ২টি মোবাইল টিম ও ১টি স্ট্রাইকিং ফোর্স নিয়োজিত থাকবে। দায়িত্বপ্রান্ত নির্বাচনী এলাকায় তিনজন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও পাঁচজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবেন। উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে জানানো হয়েছে, শনিবার সকাল থেকেই প্রতিটি কেন্দ্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্যদের পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। নির্বাচন কর্মকর্তারাও স্ব স্ব কেন্দ্রে পৌঁছে গেছেন। বেলা ১১টা থেকে পাঠানো হয়েছে নির্বাচনী সরঞ্জামাদি। আজ সকালে ব্যালটপেপার পাঠানো হবে।
বেনাপোল থেকে স্টাফ রিপোর্টার মুসলিম উদ্দীন পাপ্পু ও শার্শা থেকে প্রতিনিধি আব্দুল মান্নান জানিয়েছেন, শার্শার একশ’ আটটি ভোট কেন্দ্রে দুই লাখ ৩৫ হাজার দুইশ’ ৪৩ জন ভোটার রয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ এক লাখ ১৮ হাজার দুইশ’ এবং নারী ভোটার এক লাখ ১৭ হাজার ৪৩ জন। এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৪৩ জন। তবে নির্বাচনের আগে বিদ্রোহী তিন ও স্বতন্ত্র একজন প্রার্থী ঘোষণা দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। এছাড়া, সংরক্ষিত মহিলা মেম্বর পদে ৯৭ জন ও সাধারণ সদস্য পদে চারশ’ সাতজন প্রতিদ্বন্দ্বী রয়েছেন। উপজেলা রিটার্নিং অফিসার ও শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজা জানান, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে সব প্রস্তুুতি সম্পন্ন হয়েছে। কেন্দ্রে কেন্দ্রে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের দায়িত্ব বন্টন ও নির্বাচনী সামগ্রী বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। উপজেলার ৬২টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে পুলিশ ও আনসার সদস্যরা শনিবার থেকে শুরু করে নির্বাচনী কার্যক্রম শেষ হওয়া পর্যন্ত স্থায়ীভাবে দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া, বাড়তি নিরাপত্তার জন্য পুলিশের মোবাইল টিম, বিভিন্ন বাহিনীর সমন্বয়ে স্ট্রাইকিং ফোর্স, র‌্যাব ও বিজিবি’র টিম সার্বক্ষণিক কাজ করবে বলে জানান তিনি।
মণিরামপুর থেকে জাহাঙ্গীর হোসেন ও তাজাম্মূল হোসেন জানিয়েছেন, উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নে চেয়ার‌্যান, সংরক্ষিত মেম্বার ও সাধারণ মেম্বার পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আটশ’ ৯৪ জন। তাদের মধ্যে ১৫ ইউনিয়নে ৭৪ জন চেয়ারম্যান, একশ’ ৮১ জন সংরক্ষিত নারী মেম্বার এবং ছয়শ’ ৩৯ জন সাধারণ সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সুষ্ঠু পরিবেশে ভোট গ্রহণের জন্য প্রতি কেন্দ্রে পাঁচজন করে পুলিশ, ১৭ জন করে আনসার সদস্য নিয়োজিত রয়েছেন। ৩ প্লাটুন বিজিবি ও র‌্যাবের ৩টি দল টহলে থাকবে। অপরাধ দমনে প্রতি ২ ইউনিয়নে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োজিত থাকবেন। জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট থাকছেন ছয়জন। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোতে ছয়জন পুলিশ নিয়োজিত করা হয়েছে। তবে মণিরামপুরে ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রের সংখ্যা জানাতে পারেননি উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা। মণিরামপুরে ১৫২টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণের জন্য ১৫২ জন প্রিজাইডিং অফিসার, আটশ’ পাঁচশ’জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার, এক হাজার ছয়শ’ দশজন পোলিং অফিসার নিয়োগ দেয়া হয়েছে।   




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft