দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে নজর দিতে হবে নাস্তায়        যশোরের দু’ নির্বাচন কর্মকর্তাকে প্রত্যাহারের দাবিতে সাংবাদিকদের স্মারকলিপি প্রদান       সাতটি বোমাসহ একজন আটক       রাজারহাটে এমপি নাবিলের পক্ষে কম্বল বিতরণ       মাকে চেতনানাশক খাইয়ে সোনা ও টাকা চুরি        বান্ধবীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় কিশোরকে ছুরিকাঘাত        চট্টগ্রামকে হারাল খুলনা       প্রথম জয় সূর্য সংঘের       বিএনপি-জামায়াত দেশের উন্নয়নে ভীত : তথ্যমন্ত্রী       রোহিঙ্গাদের জন্য জাপান ২০ লাখ মার্কিন ডলার দেবে      
ওয়াল্টন গ্রুপের উপনির্বাহী পরিচালকের বিরুদ্ধে যশোরে মামলা
কাগজ সংবাদ
Published : Sunday, 5 December, 2021 at 9:51 PM, Count : 448
ওয়াল্টন গ্রুপের উপনির্বাহী পরিচালকের বিরুদ্ধে যশোরে মামলাযশোরে ওয়াল্টন গ্রুপের উপনির্বাহী পরিচালক কাজী জাহিদ হাসানের বিরুদ্ধে যৌতুক দাবির অভিযোগে রোববার আদালতে মামলা হয়েছে। মামলাটি করেছেন তার স্ত্রী সুমাইয়া আফরিন সীমা। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মঞ্জুরুল ইসলাম অভিযোগটি গ্রহণ করলেও এ বিষয়ে রোববার কোনো আদেশ দেননি।
কাজী জাহিদ হাসান ঢাকার সাভার থানার জিনজিরা এলাকার মৃত কাজী আব্দুর রবের ছেলে। বর্তমানে তিনি ওয়াল্টন গ্রুপের ঢাকার বসুন্ধরার কর্পোরেট অফিসে উপনির্বাহী পরিচালক পদে কর্মরত।
যশোর সদর উপজেলার কামালপুর গ্রামের আবুল কালাম আজাদের মেয়ে সুমাইয়া আফরিন সীমা মামলায় উল্লেখ করেছেন, ২০০৪ সালের ৫ সেপ্টেম্বর এক লাখ টাকা দেনমোহরে কাজী জাহিদ হাসানের সাথে তার বিয়ে হয়। ওইসময় কাজী জাহিদ হাসান ঢাকায় ফ্ল্যাট কেনার জন্য তার পিতার কাছে ২০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন।
মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে তার পিতা জামাইকে পরে দিবেন বলে জানিয়েছিলেন। কিন্তু বিয়ের কিছুদিন পর কাজী জাহিদ হাসান ফ্ল্যাট কেনার জন্য দাবিকৃত যৌতুকের ২০ লাখ টাকা স্ত্রীকে এনে দিতে বলেন। ফলে, সুমাইয়া আফরিন সীমার পিতা আবুল কালাম আজাদ মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে জামাইকে যৌতুক হিসেবে ১৭ লাখ টাকা দেন। এই টাকা পেয়ে কিছুদিন চুপচাপ থাকার পর বাকি তিন লাখ টাকার জন্য কাজী জাহিদ হাসান তার স্ত্রীকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন শুরু করেন। অত্যাচারের এক পর্যায়ে সুমাইয়া আফরিন সীমা যৌতুকের আর কোনো টাকা দিবেন না বলে তার স্বামীকে জানিয়ে দেন। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে কাজী জাহিদ হাসান গত অক্টোবরের প্রথম দিকে দু’সন্তানসহ সুমাইয়া আফরিন সীমাকে তার পিতার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft