দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না যশোরের বিভিন্ন ব্যাংকের গ্রাহকরা       ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে নজর দিতে হবে নাস্তায়        যশোরের দু’ নির্বাচন কর্মকর্তাকে প্রত্যাহারের দাবিতে সাংবাদিকদের স্মারকলিপি প্রদান       সাতটি বোমাসহ একজন আটক       রাজারহাটে এমপি নাবিলের পক্ষে কম্বল বিতরণ       মাকে চেতনানাশক খাইয়ে সোনা ও টাকা চুরি        বান্ধবীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় কিশোরকে ছুরিকাঘাত        চট্টগ্রামকে হারাল খুলনা       প্রথম জয় সূর্য সংঘের       বিএনপি-জামায়াত দেশের উন্নয়নে ভীত : তথ্যমন্ত্রী      
যশোরে চুরি থামছে না, বাড়ছে উদ্বেগ
কাগজ সংবাদ
Published : Friday, 14 January, 2022 at 8:45 PM, Count : 337
যশোরে চুরি থামছে না, বাড়ছে উদ্বেগ যশোরে চুরির ঘটনা দিনদিন বেড়েই চলেছে। গত সপ্তাহে রাজারহাটে এক রাতে ছয় দোকানের দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনার কুলকিনারা হয়নি। এরমধ্যে শহরে একই এলাকায় একরাতে তিনবাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটে। এছাড়া গত কয়েক সপ্তাহের ব্যবধানে শহর ও আশপাশের এলাকায় আরও অনেক চুরির ঘটনা ঘটেছে। এতে করে সাধারণ মানুষের মধ্যে উৎকণ্ঠা বাড়ছে।
সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার কাজীপাড়া কাঁঠালতলা এলাকায়  তিন বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটে। ওই এলাকার শিক্ষক, ডাক্তার ও একজন ব্যাংকারের বাসায় চুরি হয়। এসময় নগদ টাকা,বিভিন্ন মালামাল ও গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ছিনিয়ে নিয়ে যায় চোরেরা।
জানা যায়, শহরের পুরাতন কসবা রায়পাড়া এলাকার ক্যান্টনমেন্ট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বিবেকানন্দ পালের বাসায় চোরেরা ছাদ দিয়ে প্রবেশ করে বিভিন্ন মালামাল ও বিদ্যুতের বিভিন্ন ধরনের ক্যাবল চুরি করে নিয়ে যায়। একইরাতে একই এলাকার শিশু বিশেষজ্ঞ প্রকাশ দাসের  চেম্বারে চুরি হয়। চোরেরা তার চেম্বার থেকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা যন্ত্রপাতি ও নগদ টাকা  নিয়ে যায়। এসময় কিছু কাগজপত্র তছনছ করে  চোরেরা।
একই এলাকার নুর ইসলাম নামে এক ব্যাংকারের বাসায় প্রবেশ করে  চোরেরা সিঁড়ি ঘরের নীচ থেকে বিদ্যুতের বিভিন্ন তার  বোর্ড, মিটারসহ অন্যান্য মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়।
এছাড়া, গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর রাতে যশোর সদর উপজেলার রাজারহাটে ফিল্মি স্টাইলে এক রাতে ছয় দোকানে দূর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটে। এসময় চোরেরা তিনজন নাইটগার্ডকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বেঁধে ফেলে। পরে ছয়টি দোকান থেকে বিভিন্ন মালামাল ও নগদ টাকা নিয়ে সটকে পড়ে। ক্ষতিগ্রস্ত দোকানি ঐশি পাতিঘরের মালিক ইসরাইল হোসেনের সাতলাখ, শেখ ওয়াল্ডিংয়ের মালিক মুস্তাক শেখের ৮০ হাজার, বাবু স্টোরের মালিক পরাগ হাসানের ৭০ হাজার, সোহাগ অটোর মালিক সোহাগ হোসেনের ৬০ হাজার, কে আর এন্টারপ্রাইজের মালিক আব্দুল আওয়ালের এক লাখ ৪০ হাজার ও  নিউ এমএম মোটরসের মালিক মামুন হোসেন রনির একলাখ ৩০ হাজার টাকার ক্ষতি হয় বলে থানায় দেয়া অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া, গত সপ্তাহে পোস্ট অফিসপাড়া থেকে কয়েকটি সাইকেল চুরির ঘটনা ঘটে। তার কয়েকদিন আগে একই এলাকা থেকে মোটরসাইকেল চুরি হয়। এদিকে, একেরপর এক চুরির ঘটনায় সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ তাজুল ইসলাম বলেন, তারা তৎপর রয়েছেন। চুরির সাথে জড়িতদের ধরে আদালতে সোপর্দ করা হচ্ছে। বিষয়টি তারা গুরুত্বের সাথে দেখছেন বলে জানিয়েছেন তাজুল ইসলাম। 




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft