অর্থকড়ি
শিরোনাম: যশোরে অধিকাংশ ইজিবাইক ও রিকসা চুরিতে রবিউল সিন্ডিকেট        যশোরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপিত       নাটোরে সড়ক দুর্ঘটনায় যশোরের ট্রাক চালক নিহত        যশোরে হাসপাতালে ভর্তি স্বামীকে বিষ প্রয়োগে হত্যার চেষ্টা, স্ত্রী আটক       স্বপ্নের পদ্মা সেতুর টোল চূড়ান্ত       সম্রাটকে জামিন দেয়ায় ক্ষুব্ধ হাইকোর্ট       ক্ষমতা কমলো পরিকল্পনামন্ত্রীর       মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় তিন জনের রায় বৃহস্পতিবার       পিকে ও সহযোগীদের আরো ১৪ দিন রিমান্ডে চায় ইডি       লামায় ভ্রাতৃঘাতি ষড়যন্ত্রের এক নির্মম কাহিনী      
বাজারে দাম বেশি, গুদামে দিতে অনিহা
রাণীনগরে দুই মাসে ধান সংগ্রহ মাত্র চার মেট্রিকটন!
কাজী আনিছুর রহমান, রাণীনগর (নওগাঁ) :
Published : Thursday, 27 January, 2022 at 5:54 PM, Count : 128
রাণীনগরে দুই মাসে ধান সংগ্রহ মাত্র চার মেট্রিকটন!চলতি আমন মৌসুমে অভ্যন্তরিন ধান-চাল সংগ্রহ অভিযানে নওগাঁর রাণীনগরে সরকারীভাবে চাল সংগ্রহ হয়েছে ৮শত মেট্রিকটন এবং গত দুই মাসে ধান সংগ্রহ হয়েছে মাত্র চার মেট্রিকটন। নির্ধারিত সময়ে চাল সংগ্রহের সম্ভবনা ধাকলেও সরকার নির্ধারিত দামের চেয়ে স্থানীয় বাজারে ধানের দাম বেশি থাকায় খাদ্য গুদামে ধান দিচ্ছেন না কৃষকরা। ফলে ধান সংগ্রহ অভিযান মুখ থুবরে পরেছে।
রাণীনগর উপজেলা খাদ্য গুদাম সুত্রে জানা গেছে,আমন মৌসুমে সরাসরি কৃষকের নিকট থেকে ২৭ টাকা কেজি দরে ৯৬৯ মেট্রিকটন ধান ক্রয়ের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। ১ডিসেম্বর উদ্বোধনের দিনে মাত্র চার মেট্রিকটন ধান ক্রয় করা হয়। এর পর গত দুই মাসেও আর এক মুঠ ধানও সংগ্রহ করতে পারেনি। খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা হেলাল উদ্দীন জানান,সরকারীভাবে  ২৭ টাকা কেজি দরে ধান ক্রয় করা হচ্ছে। এর বিপরীতে স্থানীয় বাজারে ধানের দাম বেশি পাওয়ায় কৃষকরা খাদ্য গুদামে ধান দিচ্ছেন না। তবে ৪০ টাকা কেজি দরে এক হাজার ৩৩৬ মেট্রিকটন চাল সংগ্রহে ইতি মধ্যে চুক্তিবদ্ধ মিলাররা প্রায় ৮০০ মেট্রিকটন চাল দিয়েছেন। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত ধান-চাল সংগ্রহ অভিযান অব্যাহত থাকবে। আসা করছি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে চালের লক্ষ মাত্রা অর্জিত হবে। তবে ধান সংগ্রহ নিয়ে একটু সংশয় রয়েছে।তার পরেও সার্বিকভাবে চেষ্টা করা হচ্ছে।
 মিরাট গ্রামের কৃষক হবিবর রহমান,গোনা গ্রামের হাসেম আলী,তালিমপুর গ্রামের উজ্জল হোসেনসহ কৃষকরা জানান,সরকার একহাজার ৮০ টাকা প্রতিমন ধান ক্রয় করছেন। অথচ মৌসুমের শুরুতেই আমরা স্থানীয় বাজারে প্রতিমন ধান বিক্রি করেছি এক হাজার ১৫০ টাকা থেকে প্রায় ১২শত টাকা মন। ধানের রকম ভেদে এখনো প্রায় এক হাজার ১২০ টাকা মন ধান বিক্রি হচ্ছে। তাহলে আমরাতো আর লোকসান দিয়ে সরকারী খাদ্য গুদামে ধান বিক্রি করবোনা। তবে আমন মৌসুমে ধানের ফলন এবং বাজারে ভাল দাম  পাওয়ায় খুশি বলে জানিয়েছেন কৃষকরা।
রাণীনগর উপজেলা অভ্যন্তরিন ধান-চাল ক্রয় কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন,নির্ধারিত সময়ের মধ্যে চাল সংগ্রহ হবে,তবে ধান সংগ্রহের লক্ষ মাত্রা অর্জনেও আমরা সার্বিকভাবে চেষ্টা করছি।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft