অর্থকড়ি
শিরোনাম: চট্টগ্রামেও পদ্মার ঢেউ : দিনব্যাপী নানা আয়োজন       রাজবাড়ীতে বড় পর্দায় দেখানো হয়েছে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান       পদ্মা সেতু: দুঃখ ঘুচাবে বাগেরহাটের কৃষক ও মৎস্যচাষিদের       কৃষকের বাতিঘরের উদ্যোগে আম চাষিদের পরামর্শ        অ্যাম্বুলেন্স ফ্রি, বিদেশিদের ডাবল টোল চান জাফরুল্লাহ       পদ্মা সেতু: বিশ্বব্যাংকের অভিনন্দন       ওয়াশিংটনে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদযাপন       পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে সিএমপির আনন্দ শোভাযাত্রা       আখের রস-শরবত বিক্রির হিড়িক       পদ্মা নদীতে দৃষ্টিনন্দন নৌকাবাইচ      
তরতর করে বাড়ছে গুঁড়ো দুধের দাম
ঢাকা অফিস
Published : Saturday, 21 May, 2022 at 2:28 PM, Count : 133
তরতর করে বাড়ছে গুঁড়ো দুধের দামগেল ঈদুল ফিতরের আগে থেকেই বাজারে পাল্লা দিয়ে বাড়তে শুরু করে নিত্যপণ্যের দাম। ঈদের পর দাম বাড়া পণ্যের তালিকায় নতুন করে যোগ হয়েছে চাল, ডাল, গুঁড়োদুধ, সাবান, শ্যাম্পু ও টুথপেস্টের মতো পণ্যও। বিশেষ করে গুঁড়োদুধের দাম বাড়ছে তরতর করে।
শুক্রবার রাজধানীর বাজারগুলোতে প্যাকেটজাত গুঁড়োদুধ আগের সপ্তাহের চেয়ে কেজিতে ৫০-৬০ টাকা করে বাড়তি দামে বিক্রি করতে দেখা গেছে। বর্তমানে গুঁড়োদুধ কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে সর্বোচ্চ ৭৫০ টাকায়, যা গত সপ্তাহেও ছিল ৭০০ টাকা।
এদিকে ব্রয়লার মুরগির দাম কমলেও বেড়েছে ডিমের দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে ফার্মের মুরগির ডিমের দাম ডজনে ১০ টাকা বেড়েছে। প্রতি ডজন ডিম বিক্রি হচ্ছে ১২০, যা গত সপ্তাহে ছিল ১১০ টাকা।
তবে সবচেয়ে দাম বেড়েছে গুঁড়োদুধের। কোম্পানিভেদে কেজিতে ৫০-৬০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি গুঁড়োদুধ সরবরাহকারী কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধি জানান, কোম্পানি থেকে তাদের বলা হয়েছে ডলারের দাম বেড়ে যাওয়ার কারণে আমদানি পর্যায়ে ক্রয়মূল্য বেশি পড়ছে। এ কারণেই দাম বেড়েছে। এক সপ্তাহ আগে সর্বশেষ তাদের কোম্পানি গুঁড়োদুধের খুচরা বিক্রয়মূল্য (এমআরপি) ৭৯০ টাকা নির্ধারণ করেছে। অবশ্য ওইসব প্যাকেট এখনো বাজারে সরবরাহ করা হয়নি। এর অর্থ হচ্ছে, সামনে গুঁড়োদুধের দাম আরও বাড়বে।   ভোজ্য তেলের দাম বৃদ্ধির তথ্য নতুন নয়। তবে ঈদের পর থেকে মাত্রাতিরিক্ত বাড়তে শুরু করেছে সয়াবিন তেলের দাম। যা আস্তে আস্তে জনগণের নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে। গতকাল কারওয়ান বাজারে গিয়ে দেখা যায়, সয়াবিনের ১ লিটারের বোতল না থাকায় বিক্রেতারা ৫ লিটারের বোতল খুলে আধা লিটার, এক লিটার করে বিক্রি করছেন। এতে করে সরকারে বেঁধে দেওয়া ১৯৮ টাকা লিটারের সয়াবিন তেল ক্রেতারা কিনছেন প্রতি লিটার ২১০-২১৫ টাকায়। তবে নিম্ন আয়ের অনেক মানুষ ২০০ থেকে ৩০০ গ্রাম তেলও কিনছেন।
বাজারে সব ধরনের সাবানের দাম নতুন করে বৃদ্ধি পেয়েছে। খুচরা বাজার ঘুরে দেখা যায়, আকারভেদে প্রতিটি সাবানের দাম বেড়েছে ২-৪ টাকা। ব্র্যান্ডের ছোট-বড় আকারভেদে সব শ্যাম্পুর মূল্যও বৃদ্ধি পেয়েছে। বৃদ্ধি পেয়েছে দাঁত মাজার টুথপেস্টেরও।
তিনি আরও বলেন, ‘দেশের বাজারের তেলকান্ডের ঘটনা এখন সবার কাছে স্পষ্ট। সঙ্গে যুক্ত হয়েছে চাল, ডাল, সাবান, চিনিসহ অন্যান্য নিত্যপণ্যের দাম বাড়ার নতুন যন্ত্রণা।’
বাজার পরিস্থিতির বিষয়ে জানতে চাইলে জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এএইচএম সফিকুজ্জামান বলেন, ‘দেশের মানুষের স্বার্থে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে। তেল বাজারে নৈরাজ্যের শুরু থেকে আমাদের সদস্যরা মাঠে সক্রিয় ছিল। বাজারের অস্থিরতা সৃষ্টিকারী অসাধু ব্যবসায়ীদের লাগাম টেনে ধরার জন্য ভোক্তার অভিযান সবসময় মাঠে চলবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘দেশের বাজারে নতুন করে যেসব পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে, আগামী সপ্তাহ থেকে সেসব পণ্যের মূল্য বাড়ার কারণ জানার চেষ্টায় আমাদের অভিযান শুরু হবে।’





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft