আন্তর্জাতিক সংবাদ
শিরোনাম: পদ্মা সেতুর উদ্বোধন থেকে ফেরা হলো না অহিদুল-মফিজুরের       স্বপ্ন হলো সত্যি       পদ্মাপাড়ের উৎসবের ঢেউ আছড়ে পড়ে যশোরেও       সাংবাদিক মিজানুরের পিতার ইন্তেকাল       জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশনের বাজেট বিষয়ক বিশেষ সাধারণ সভা       পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রীকে যবিপ্রবি পরিবারের ধন্যবাদ       অনুর্ধ্ব-২০ ভলিবল দলে যশোরের দু’জন       ব্যাটিংয়ে অখুশি সিডন্স       বড় পর্দায় পদ্মা সেতুর উদ্বোধন দেখলেন যশোরবাসী       কালিয়ায় ট্রলিচাপায় মাদরাসা ছাত্রের মৃত্যু      
‘পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্র’
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Wednesday, 25 May, 2022 at 5:17 PM, Count : 60
‘পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্র’যুক্তরাষ্ট্র পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বন্দুকধারীর গুলিতে ১৯ শিক্ষার্থীসহ ২১ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় শোক জানিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। ১০ দিনের ব্যবধানে যুক্তরাষ্ট্রে দুটি বন্দুক হামলার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়েছে।
ওবামা বলেন, ‘দেশজুড়ে বাবা মায়েরা সন্তানদের বিছানায় শুইয়ে দিয়ে বিভিন্ন গল্প শোনান। ঘুম পাড়ানিয়া গান শোনান। কিন্তু তাঁদের মনের মধ্যে অনিশ্চয়তা চলতে থাকে। কাল সন্তানদের স্কুলে দিয়ে আসার পর, মুদিদোকানে নিয়ে যাওয়ার পর কিংবা অন্য যেকোনো জনপরিসরে রেখে আসার পর কী ঘটবে, তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন তাঁরা।’
ওবামা বলেন, তিনি ও তাঁর স্ত্রী নিহত ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি শোক প্রকাশ করেছেন। এ বন্দুক হামলার ঘটনা নিয়ে ক্ষোভও জানিয়েছেন তিনি।
বারাক ওবামা বলেন, ‘স্যান্ডি হুকের ঘটনার প্রায় ১০ বছর এবং বাফেলোর ঘটনার ১০ দিন পর আমাদের দেশ পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। আতঙ্কে নয়, বরং আগ্নেয়াস্ত্রের পৃষ্ঠপোষক এবং একটি রাজনৈতিক দলের কারণে এমনটা হয়েছে। তারা এসব মর্মান্তিক ঘটনা ঠেকাতে কোনো ধরনের ব্যবস্থা নেওয়ার আগ্রহ দেখায়নি।’ তিনি আরও বলেন, ‘অনেক আগেই এ নিয়ে ব্যবস্থা নিতে হতো। যেকোনো ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া যেত।’
২০১৫ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব ছাড়ার প্রস্তুতি নেওয়ার সময় বিবিসিকে ওবামা বলেন, তাঁর প্রশাসন অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনে সংস্কার আনতে ব্যর্থ হয়েছে। একে প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিজের মেয়াদকালের সবচেয়ে বড় হতাশা বলে উল্লেখ করেছিলেন তিনি। বিবিসির জন সোপেলকে তিনি বলেছিলেন, ‘এ ইস্যুর সমাধান না করতে পারাটা আমাদের জন্য কষ্টকর।’
মঙ্গলবার সাউথ টেক্সাসের উভালদে শহরের যে স্কুলে হামলা চালানো হয়েছে, সেটির নাম রব এলিমেন্টারি স্কুল। এর আগে অঙ্গরাজ্যের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবোট জানিয়েছিলেন, গুলিতে ১ শিক্ষক ও ১৪ শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। সালভাদর রামোস নামের ১৮ বছর বয়সী এক তরুণ ওই হামলা চালিয়েছেন।
এ হামলার ১০ দিন আগে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের বাফেলোর একটি সুপারমার্কেটে গুলি চালানো হয়। এতে ১০ জন নিহত হন। ওই সময় যিনি গুলি চালিয়েছিলেন, তাঁর বয়সও ছিল ১৮। পুলিশ ধারণা করছে, সেটি ছিল বিদ্বেষপ্রসূত অপরাধ।
যুক্তরাষ্ট্রের স্কুলে এর আগেও হামলা হয়েছে। তবে গত ১০ বছরে যেসব হামলা হয়েছে, সেগুলোর মধ্যে অন্যতম টেক্সাসের এ হামলা। এর আগে ২০১২ সালে কানেকটিকাটে একটি স্কুলে হামলা চালানো হয়। ওই হামলা ২০ শিশুসহ ২৬ জন নিহত হন। নিহত ওই শিশুদের বয়স ছিল ১০ বছরের মধ্যে। এ ছাড়া ২০১৮ সালে ফ্লোরিডার একটি স্কুলে হামলার ঘটনা ঘটে। ওই হামলায় ১৭ শিক্ষার্থী ও শিক্ষক নিহত হন।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft