অর্থকড়ি
শিরোনাম: পদ্মা সেতুর উদ্বোধন থেকে ফেরা হলো না অহিদুল-মফিজুরের       স্বপ্ন হলো সত্যি       পদ্মাপাড়ের উৎসবের ঢেউ আছড়ে পড়ে যশোরেও       সাংবাদিক মিজানুরের পিতার ইন্তেকাল       জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশনের বাজেট বিষয়ক বিশেষ সাধারণ সভা       পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রীকে যবিপ্রবি পরিবারের ধন্যবাদ       অনুর্ধ্ব-২০ ভলিবল দলে যশোরের দু’জন       ব্যাটিংয়ে অখুশি সিডন্স       বড় পর্দায় পদ্মা সেতুর উদ্বোধন দেখলেন যশোরবাসী       কালিয়ায় ট্রলিচাপায় মাদরাসা ছাত্রের মৃত্যু      
ফের অস্বস্তি চালে বেড়েছে আলু কমেছে ইলিশের দাম
কাগজ সংবাদ
Published : Friday, 17 June, 2022 at 9:15 PM, Count : 310
ফের অস্বস্তি চালে বেড়েছে আলু কমেছে ইলিশের দামমাত্র এক সপ্তাহের ব্যবধানে যশোরের বাজারে পাল্টে গেলো চালের দরের চিত্র। চালের দাম কমায় সপ্তাহ খানিক স্বস্তি মিললেও সপ্তাহের শেষে ফের এলো দুঃসংবাদ। আবারও বেড়েছে চালের দাম। তবে দাম কমার তালিকায় রয়েছে ইলিশ মাছ ও কাঁচামরিচ। অপরিবর্তিত রয়েছে মশলার বাজার।  
নিত্যপণ্যের মূল্য কোনোটি কমে তো আবার কোনোটি বাড়ে তাই অস্বস্তিতে দিনাতিপাত করছেন ক্রেতারা। শুক্রবার যশোরের বিভিন্ন খুচরা বাজারে চাল বিক্রি হয়েছে প্রতি কেজি মিনিকেট ৬২ থেকে ৬৪ টাকা। যা সপ্তাহের শুরুতে বিক্রি হয় ৬০ টাকা কেজি দরে। বাসমতি ৬৬ টাকা কেজিতে বিক্রি হলেও সপ্তাহের শেষে এসে বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকায়। তেমনি আঠাশ ৫২ টাকায় বিক্রি হলেও এখন বিক্রি হচ্ছে ৫৪ থেকে ৫৬ টাকায়। সপ্তাহের শুরুতে কাজললতা ৫২ থেকে ৫৪ টাকা কেজিতে বিক্রি হলেও সপ্তাহের শেষ দিন শুক্রবার বিক্রি হয় ৫৬ টাকায়। নাজিরশাইল বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা কেজিতে। প্রতি কেজি স্বর্ণা বিক্রি হচ্ছে ৪৬ টাকায়। ক্রেতা সাইফুল ইসলাম বলেন, বুঝলাম না কী হচ্ছে। মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যেই চালের দাম আবার বেড়ে গেছে। এর আগে এমন দেখিনি। বড় বাজারের চালের আড়তদার রফিকুল ইসলাম বলেন, দাম কমা বা বাড়া আমাদের হাতে নেই। সবাই বাড়তি দামে বিক্রি করলে তখন আমাদেরও তা অনুসরণ করতে হয়।  
পহেলা বৈশাখের দু’ মাস পরে এসে ইলিশ মাছের দাম খানিকটা কমলো। গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে ইলিশ মাছ কেজিতে দুশ’ থেকে তিনশ’ টাকা করে কমেছে। এ সপ্তাহে ছোট ইলিশ মাছ বিক্রি হচ্ছে তিনশ’ থেকে চারশ’ টাকায়। যা গত সপ্তাহে পাঁচশ থেকে ছয়শ’ টাকায় বিক্রি হয়। এ সপ্তাহে মাঝারি ইলিশ বিক্রি হচ্ছে সাতশ’ থেকে আটশ’ ৫০ টাকায়। যা গত সপ্তাহে এক হাজার টাকায় বিক্রি হয়। বড় ইলিশ বিক্রি হচ্ছে দুই হাজার টাকার স্থলে এক হাজার সাতশ’ কিংবা এক হাজার ছয়শ’ টাকায়। ক্রেতা রুবাইয়াত সুলতানা বলেন, গত কয়েক মাস বাজারে আসলেও ইলিশের ধারে কাছে যাইনি। তবে, এখন কিনতে পারবো বলে মনে হচ্ছে। বড় বাজারের মাছ ব্যবসায়ী স্বপন হাওলাদার বলেন, বেশিরভাগ ক্রেতা দাম শুনে চলে যান। খুব কম ক্রেতাই ইলিশ কেনেন। বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানের জন্য কেউ কেউ ইলিশ মাছ কিনতে আসেন। তবে, এখন হয়তো বেচাকেনা একটু বাড়বে।
অন্যদিকে, কমেছে কাঁচামরিচের দাম। গত সপ্তাহে ৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হলেও এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকায়। অন্যান্য সবজির মধ্যে করলা ৪০ টাকা কেজি। উচ্ছে ৬০ টাকা। ঢেঁড়স ও পটল ২০ টাকা। কাঁচ কলা ৪০ টাকা। চিচিঙ্গা ও মিষ্টি কুমড়া ৩০ টাকা। বেগুন ৫০ টাকা। কাকরোল ৬০টাকা। লাউ সাইজ ও মান অনুযায়ী ২০ টাকা থেকে ৪০ টাকা। চাল কুমড়া ৩০ টাকা পিচ। তবে, আলুর দাম আরেক দফা বাড়লো বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ২৫ টাকা কেজিতে। যা গত সপ্তাহেও ২২ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়। টমেটো একশ’ টাকা। গাজর একশ’ ৪০ টাকা। বড় বাজারের সবজি বিক্রেতা আবু রায়হান বলেন, বাজারে কাঁচমরিচের সরবরাহ বেড়েছে তাই দামও গত সপ্তাহের তুলনায় অর্ধেকে নেমে এসেছে।
মশলা বাজারে জিরা বিক্রি হচ্ছে চারশ’ ৪০টাকা কেজি দরে। ধনিয়া একশ’ ৬০টাকা কেজি। দারুচিনি বিক্রি হচ্ছে চারশ’ ৪০ টাকায়। লবঙ্গ এক হাজার চারশ’ টাকা কেজি। এলাচ দু’ হাজার চারশ’ টাকা কেজি। পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা থেকে ৪৫ টাকা কেজিতে। রসুন বিক্রি হচ্ছে একশ’ টাকা থেকে একশ’ ৬০ টাকা কেজিতে। আদা বিক্রি হচ্ছে একশ’ থেকে একশ’ ৩০ টাকা কেজি।   
খোলা সয়াবিন তেল দুশ’ ১২টাকা কেজি। বোতলজাত সয়াবিন দুশ’ পাঁচ টাকা লিটার। খোলা আটা ৪০ টাকা কেজি। প্যাকেট আটা ৫০ টাকা। লবণ ৩৫ টাকা কেজি। চিনি ৮২ থেকে ৮৮ টাকা। মসুরের ডাল বড় দানা একশ’ ১০, ছোট দানা একশ’৩৫ টাকা। মুগের ডাল একশ’ ৩০, বুটের ডাল ৬৫, ছোলার ডাল ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ছয়শ’ ৫০ টাকায়। গত সপ্তাহে খাসির মাংস আটশ’ ৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হলেও খানিকটা বেড়ে সপ্তাহের শেষে বিক্রি হচ্ছে নয়শ’ টাকা কেজিতে।    




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft