তথ্য ও প্রযুক্তি
শিরোনাম: যশোরের ৪ অফিসার পুরস্কৃত       ট্রেনের ভাড়াও বাড়ানো হতে পারে : রেলমন্ত্রী       গম-ভুট্টা চাষিরা কম সুদে পাবেন ১ হাজার কোটি টাকার ঋণ       ৩৮ দিন পর করোনায় মৃত্যু শূন্য দিনে দেখলো দেশ       আমদানি পণ্যের ট্রাকে মিলল ফেনসিডিল-ওষুধ        শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে গাছে ধাক্কা খেয়ে বাইকার নিহত       মাছে রং মেশানোর অপরাধে ২ ব্যবসায়ীকে জরিমানা       বাংলাদেশকে জিডিআইতে যুক্ত হতে প্রস্তাব দিয়েছে চীন       তাজিয়া মিছিলে বর্শা-বল্লম-তরবারি নয়, আতশবাজি নিষিদ্ধ       হজে গিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি করা সেই মতিয়ারের জামিন      
স্যামসাংকে ৯০ কোটি টাকা জরিমানা
কাগজ ডেস্ক
Published : Friday, 24 June, 2022 at 6:58 PM, Count : 166
স্যামসাংকে ৯০ কোটি টাকা জরিমানাপ্রতারণার অভিযোগে বিপুল অংকের জরিমানার মুখোমুখি হয়েছে স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। মূলত নিজেদের স্মার্টফোন নিয়ে মিথ্যা পানি-প্রতিরোধক দাবির কারণে অস্ট্রেলিয়ায় ৯৭ লাখ মার্কিন ডলারের এ জরিমানার মুখোমুখি হয়েছে সংস্থাটি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ৯০ কোটি টাকা।
রয়টার্স প্রতিবেদনে জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার প্রতিযোগিতা নিয়ন্ত্রক সংস্থা বৃহস্পতিবার বলেছে, স্যামসাং ইকেট্রনিক্সের স্থানীয় একটি ইউনিটকে (০০৫৯৩০.কঝ) এক কোটি ৪০ লাখ অস্ট্রেলীয় ডলার (৯৬ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার) জরিমানা করেছে অস্ট্রেলিয়ার একটি আদালত। মূলত স্যামসাংয়ের কিছু স্মার্টফোনে পানি-প্রতিরোধক বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে প্রতারণাপূর্ণ দাবির জন্য জরিমানার নির্দেশ দেয় ওই আদালত।
অস্ট্রেলিয়ান কম্পিটিশন অ্যান্ড কনজিউমার কমিশন (এসিসিসি) জানিয়েছে, স্যামসাং অস্ট্রেলিয়া তার কিছু ‘গ্যালাক্সি’ ফোনের ক্রেতাদের পানি-প্রতিরোধের (ওয়াটার রেসিস্ট্যান্স) মাত্রা সম্পর্কে বিভ্রান্ত করার কথা স্বীকার করেছে। এর আগে ২০১৯ সালের জুলাইয়ে কোম্পানিটির বিরুদ্ধে মামলা করেছিল অস্ট্রেলিয়ার এই নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।
অস্ট্রেলীয় এই নিয়ন্ত্রক সংস্থা জানিয়েছে, ২০১৬ সালের মার্চ মাস থেকে ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসের মধ্যে নিজেদের স্মার্টফোনের পানি প্রতিরোধক ক্ষমতা সম্পর্কে দোকানে এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজ্ঞাপন চালায় কোম্পানিটি। প্রচারিত সেসব বিজ্ঞাপনে সেসময় স্যামসাং দাবি করেছিল, তাদের স্মার্টফোনগুলো সুইমিং পুল অথবা সমুদ্রের পানির মধ্যে ব্যবহার করা যেতে পারে।
অবশ্য এরপর থেকেই ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে শত শত অভিযোগ পায় এসিসিসি। সেসব অভিযোগে জানানো হয়, স্মার্টফোনগুলো সঠিকভাবে কাজ করে না বা এমনকি পানির সংস্পর্শে আসার পরে এসব স্মার্টফোন সম্পূর্ণরূপে কাজ করা বন্ধ করে দেয়।
অস্ট্রেলিয়ান কম্পিটিশন অ্যান্ড কনজিউমার কমিশনের প্রধান জিনা ক্যাস-গটলিয়েব বলেছেন, সুইমিং পুল অথবা সমুদ্রের পানির মধ্যে স্মার্টফোন ব্যবহারের এই দাবিগুলো মূলত গ্যালাক্সি ফোনগুলোর বিক্রির পেছনে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট হিসেবে কাজ করেছে। গ্যালাক্সি ফোন কেনা অনেক গ্রাহক নতুন একটি ফোন কেনার সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপনের মুখোমুখি হয়ে থাকতে পারেন। অবশ্য স্যামসাং তাৎক্ষণিকভাবে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft