দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: হত্যা চেষ্টার অভিযোগে ছেলের বিরুদ্ধে মামলা       যশোরে ইয়াবসহ নারী মাদক ব্যবসায়ী আটক       ক্ষেমতা যট্টুক, তট্টুকই দেকানো ভালো!       আফগানিস্তানে আকস্মিক বন্যা       যশোরে স্বামীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা       খুলনার লোটাস এন্টারপ্রাইজ প্রীতি খাদ্য নিয়ন্ত্রকের, চরম অসন্তোষ       হয়রানির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন       চৌগাছায় বেশি দামে তেল বিক্রি করায় ২৫ হাজার টাকা জরিমানা        কেশবপুরে পল্লী চিকিৎসক সুব্রত হত্যা মামলায় একজনের যাবজ্জীবন        ‘দেশের অগ্রযাত্রায় অংশ নিয়ে ঋণ শোধ করতে হবে’      
তেলের মূল্য বৃদ্ধিতে মানুষের মধ্যে অস্থিরতা
প্রভাব পড়তে শুরু করেছে পরিবহন খাতে
উজ্জ্বল বিশ্বাস
Published : Sunday, 7 August, 2022 at 1:19 AM, Update: 07.08.2022 1:20:39 AM, Count : 126
তেলের মূল্য বৃদ্ধিতে মানুষের মধ্যে অস্থিরতাজ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধিকে অস্বাভাবিক উল্লেখ করে এর প্রভাব সকল ক্ষেত্রেই পড়বে বলে মনে করছেন সাধারণ মানুষ। এটা সামাল দিতে বেশ বেগ পেতে হবে বলেও মনে করেন তারা। ইতিমধ্যে যশোরাঞ্চলের প্রায় সকল রুটে ইচ্ছামতো বর্ধিতহারে বাস ভাড়া নেয়া হচ্ছে যাত্রীদের কাছ থেকে। সাধারণ মানুষ মনে করেন, আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের মূল্য বৃদ্ধির সাথে সমন্বয় করতে হলে তা আস্তে আস্তে করা যেতো, এক লাফে এত বেশি মূল্য বৃদ্ধির চাপ সহ্য করা দুস্কর হয়ে উঠতে পারে।
শনিবার সকাল থেকে যশোর শহর ছাড়াও আশপাশের এলাকায় ব্যাপক খোঁজ নিয়ে এই প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা গেছে। এসময় সাধারণ মানুষ, পরিবহন যাত্রী, মালিক-শ্রমিক, মোটরসাইকেল চালক, কৃষকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সাথে কথা হয় এই প্রতিনিধির। তেলের আকস্মিক এবং রেকর্ড দাম বৃদ্ধিতে হতবাক হয়েছেন সবাই। ভিন্ন পরিস্থিতি ছিল পাম্পগুলোতে। বর্ধিত দামে তেল বিক্রি করতে পারায় পাম্প শ্রমিকদের বেশ খোশমেজাজে দেখা গেছে। তেলের মূল্য বৃদ্ধির অজুহাতে কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই সকাল থেকেই ইচ্ছামতো বাস ভাড়া বাড়িয়ে দেয়া হয়েছে যশোর-ঢাকা, যশোর-নড়াইল, যশোর-মণিরামপুর, যশোর-সাতক্ষীরাসহ প্রায় সবক’টি রুটে। যাত্রীদের অভিযোগ ২০ থেকে তিনশ’ টাকা পর্যন্ত বাস ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়েছে। তবে, মালিকদের দাবি, বাস ভাড়া এখনো পুনঃনির্ধারণ করা হয়নি।
যশোর বাস মালিক সমিতির সভাপতি বদরুজ্জামান বাবলু বলেন, ‘আচমকা অস্বাভাবিক হারে তেলের দাম বৃদ্ধি করায় বাস চালাতে যতেষ্ট বেগ পেতে হবে। বৃদ্ধি পাবে বাসের ভাড়া। যা নিয়ে যাত্রীদের সাথে ঝামেলাও বাধতে পারে। কমে যাবে যাত্রীর সংখ্যাও’।
বাস মালিক আনিসুজ্জামান পিন্টু বলেন, ‘তেলের দর বৃদ্ধির ফলে আমরা কতখানি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি তা সাধারণ মানুষ হয়তো বুঝবেন না। পরিবহন সেক্টরে তেলের সাথে অন্যান্য উপকরণ যেমন গ্রিস, মবিল, টায়ারসহ অন্যান্য যন্ত্রাংশের দাম বৃদ্ধি পায়’। তেলের মূল্য দ্রুত স্বাভাবিক না হলে ব্যবসা টিকিয়ে রাখা কঠিন হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
যশোর-খুলনা সড়কে চলাচলকারী বাসের সুপারভাইজার আলিম হোসেন জানান, তারা ভাড়া বাড়াননি। তবে, বিষয়টি নিয়ে নেতৃবৃন্দ আলোচনা করছেন। কত বাড়বে সেটা অনুমান করা না গেলেও ভাড়া যে বৃদ্ধি পাচ্ছে তা তিনি নিশ্চিত। এতে রাস্তায় কিছুদিন যাত্রী কমে যাবে বলেও মনে করেন আলিম হোসেন।
বাসযাত্রী শাহিনুজ্জামান অভিযোগ করেন, তেলের মূল্য বৃদ্ধির ঘোষণার সাথে সাথে বাসের ভাড়াও বেড়ে গেছে।
মণিহার এলাকার কয়েকটি পরিবহন কাউন্টারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগের দামেই তারা টিকিট বিক্রি করছেন। তবে, কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ভাড়া বৃদ্ধির ঘোষণা যে কোন মুহূর্তেই চলে আসতে পারে। কারণ, এত বেশি দামে তেল কিনে চলমান ভাড়ায় পরিবহন চালানো সম্ভব না বলে মত দেন তারা।
সোহাগ পরিবহনের মণিহার কাউন্টারের বিক্রয় প্রতিনিধি আক্তারুজ্জামান বলেন, ‘আগের দামেই টিকিট বিক্রি করছি। তবে যাত্রী একটু কম’।
এদিকে, যাত্রীদের কাছ থেকে অভিযোগ উঠেছে ঈগল পরিবহনে যশোর-ঢাকা রুটের নন-এসিতে সাতশ’ ও এসি বাসে এক হাজার চারশ’ টাকা ভাড়া আদায় করা হয়েছে। এক্ষেত্রে নন-এসিতে দেড়শ’ এবং এসিতে দুই থেকে তিনশ’ টাকা বেশি আদায় করা হয়েছে বলে অভিযোগ।  
যশোর জেলা পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সেলিম রেজা মিঠু বলেন,  জ্বালানি তেলের মূল্য না কমলে মালিক-শ্রমিক উভয়ই ক্ষতির মধ্যে পড়বে। কারণ রাস্তায় যাত্রী কমে যাবে ভাড়া বৃদ্ধির জন্য। এজন্য বাস চলাচলও কম হবে।  
বাস চালক ইবু রহমান জানান, তেলের মূল্য রাতারাতি বৃদ্ধি হওয়ায় তারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। কারণ রাস্তায় যাত্রী কম হলে চাকরি নাও থাকতে পারে।
প্রান্তিক পেট্রোল পাম্পের বিক্রেতা মশিউর জানান, বাড়তি মূল্য দিয়েই তেল কিনছেন ক্রেতারা। তেল বিক্রিতে কোন সমস্যা হচ্ছে না।
মোটরসাইকেল চালক জুম্মোন হোসেন বলেন, ‘দশ বছর ধরে মোটরসাইকেল চালাচ্ছি। এই দাম বৃদ্ধির কারণে যে প্রভাব সর্বত্র পড়বে তা আমাদের মতো ছোটখাটো চাকরিজীবীদের জন্য কঠিনই হবে। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে সংসার চালানো দায় হবে’।
এ বিষয়ে প্রফেসর মতিউর রহমান বলেন, হঠাৎ জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধিতে জনজীবনে অস্থিরতা নেমে এসেছে। সবাই নিজের আয়ের ওপর খরচ নির্ধারণ করেন। হঠাৎ তেলের এই অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধি ভালো কিছু বয়ে আনবে না’। ভর্তুকি দিয়ে তেলের মূল্য ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে এনে ধাপে ধাপে বৃদ্ধি করা উচিত বলে মনে করেন তিনি।
প্রসঙ্গত, শুক্রবার রাতে হঠাৎ জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। বর্ধিত দাম অনুযায়ী শুক্রবার দিবাগত রাত থেকেই ক্রেতাকে ডিজেল ও কেরোসিন ১১৪ টাকা, অকটেন লিটারে ১৩৫ টাকা, পেট্রল লিটারে ১৩০ টাকায় কিনতে হচ্ছে।
এদিকে, শুক্রবার রাতে সরকার তেলের মূল্য বৃদ্ধির ঘোষণা দেয়ার পর ওই রাত ১২টার পর থেকেই তা কার্যকর হয়। সরকারি ঘোষণার সাথে সাথেই যশোরসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে অবস্থানরত পাম্পে মানুষ ভীড় করতে থাকেন। বিশেষ করে মোটরসাইকেল আরোহীরা পুরনো দামে ট্যাঙ্কি ভরাট করে নিয়ে যাওয়ার আশায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা পাম্পগুলোতে অবস্থান করেন। এর মধ্যে অনেকে পুরনো দামে তেল কেনার সুযোগ লাভ করলেও অধিকাংশকে বর্ধিত দামেই কিনতে হয়েছে।   





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft