আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
শিরোনাম: আট বছর পর জট খুললো ভোটের        নতুন দাম কার্যকর হতে সময় লাগবে!       আগামীর সম্ভাবনা ফুটিয়ে তুললো কন্যা শিশুরা       যশোরে গ্যাসের দোকানে ভোক্তার তদারকি       অস্ত্রসহ আটক অনিক রিমান্ডে       কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলায় একজনের ফাঁসি, দু’জনের যাবজ্জীবন       রূপসায় ট্রলারডুবি, নিখোঁজ মাহাতাবের মরদেহ উদ্ধার        ভবিষ্যতে সম্প্রীতির বন্ধন অটুট থাকবে: খাদ্যমন্ত্রী       জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উপলক্ষে মধুখালীতে র‌্যালি ও আলোচনা সভা       কারাভোগ শেষে স্বদেশের পথে ১৩৫ ভারতীয় জেলে      
চুপার জোরেই চলচে সব!
Published : Sunday, 28 August, 2022 at 9:01 PM, Count : 223
এক চোরের দলের মদ্দি একজনের আচে হাত ছ্যাচড়ার দোষ। কোন মাল ছামেনা চুরি কল্লি দলের লোকের চোখ ছাপায় কইরে তলশুড়া করা তার স্বভাব। এই নিয়ে বহুতবার ধরা খাইয়ে নাকে খত পন্তিক দেছে, কিন্তুক সুযোগ পালিই ডানি বায় করবেই। একদিন এক বড়লোকের বাড়ি চোরের দল চুরি কইরেচে। আলমারির মদ্দিত্তে টাকার খইতে বাগায় নিয়ে আইয়েচে। চুরির মাল ভাগ বাটোয়ারা করার সুমায় টাকার বান্ডিলিত্তে একহাজার টাকার নোট দুডো হাত ছাপায় কত্তি যাইয়ে হাতেনাতে ধরা খাইয়েচে সেই চোরডা। যে পেত্তম দেইকেচে  সে হৈ জকার কইরে দলের বাকি লোক জড়ো কইরেচে। তারে সব হাতাসিং কইরে ধইরে নিয়ে গেচে চোরের সদ্দারের কাচে। সদ্দার সব শুইনে কলে, শোন সততা না থাকলি জীবনে কোনদিন উন্নতি কত্তি পারবি নে। সৎ থাকপি, কতদিন তোরে কইচে ভাগের জিনুসেত্তে চুরি করবি নে। সৎ থাকতি না পাল্লি জীবনে কোনদিন উন্নতি কত্তি পারবিনে। চোরের সদ্দারের উপদেশ স¹লি মাতা ছ্যাও কইরে মাইনে নিয়ার হাবরা শপত কইল্লো।
সেইরাম এক অপিসি এক কম্মকত্তা ছিলো চরম ঘুষখোর। তার কাচে কোন কাজকম্ম গেলি টাকা ছাড়া ফাইল সই হইতো না। পাল্লি কায়দা কইরে আটকায় রাইকতো যাতে টাকার পরিমান বাড়ে। যদি কোন গরীবগুরো লোক চাহিদা মাফিক টাকা গুইনে দিতি না পাইত্তো তালি তাইগের দিয়ে গা হাত পা টিপায় নিতো, কিন্তুক কোন ছাড় নেই। সেই লোক একবার এক বড়লোকের ফাইল আটকায়ে পঞ্চাশ হাজার টাকা বাগায় নেচে। সেই লোক ব্যাংকেত্তে কড়কড়ে পাচশ টাকার নোটের বান্ডিল আইনে তলশুড়া কইরে খুইলে রাকা ডুরায়ারে থুইয়ে গেচে। বিটাডা তো আল্লাদে আটখানা। বৈকেল বেলা অপিসির কাজ কাম সাইরে বাড়ি যাওয়ার আগে ডুরায়ার খুইলে টাকা গুনতি গুনতি হটাস হাতে এট্টা পাচশ টাকার নোট জাল মনে হচ্চে। ভালো কইরে লাইটির দিকি উইচো কইরে দেকে সত্যি সত্যি জাল নোট। তকন দুক্কু কইরে কচ্চে মানসির ইমান আমান সব উইটে গেচে রে। বান্ডিলির মদ্দি এট্টা জাল নোট গছায় দিয়ে গেলো, কারে বিশ্বাস করবো!
একন ইরাম অবস্তা আশপাশে তামান জাগায়। যে যত বড় চোর তার চুপায় নীতিকতা। আলাম কনে, মলাম যে !
ইতি-
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
সহযোগী সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০২৪৭৭৭৬২১৮২, ০২৪৭৭৭৬২১৮০, ০২৪৭৭৭৬২১৮১, ০২৪৭৭৭৬২১৮৩ বিজ্ঞাপন : ০২৪৭৭৭৬২১৮৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft