শিরোনাম: চসিকের অনিয়ম নিয়ে দুদকের গণশুনানিতে অনুপস্থিত অভিযোগকারীরা       নওগাঁর আত্রাইয়ে কমিউনিটি পুলিশিং বিষয়ক আলোচনা সভা       দক্ষিণ এশিয়ায় দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতিতে দ্বিতীয় বাংলাদেশ       ঠাকুরগাঁও উপজেলা আঃলীগের পূনরায় টিটো সভাপতি ও মোশারুল সাধারণ সম্পাদক       বাংলাদেশ থেকে ইলিশ ধরে নিয়ে যাচ্ছে ভারতীয়রা       বাবরি মসজিদ শুনানির আগে অযোধ্যায় ১৪৪ ধারা       ১০ জনের দল নিয়েও জিতল জার্মানি       আইপিইউ’র ১৪১তম সম্মেলনের উদ্বোধন       আবরার হত্যার বিচার চেয়ে নটরডেম শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ       আবরার হত্যা: অবশেষে সেই ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার      
শ্চিমবঙ্গেও ছেলেধরা গুজব, একজনকে পিটিয়ে হত্যা
কাগজ ডেস্ক :
Published : Tuesday, 23 July, 2019 at 8:37 PM
শ্চিমবঙ্গেও ছেলেধরা গুজব, একজনকে পিটিয়ে হত্যাবাংলাদেশের মত ভারতের পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যেও ছেলেধরা গুজব চালু হয়েছে। সোমবার ওই রাজ্যে ছেলেধরা সন্দেহে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।
সোমবার রাজ্যটির ডুয়ার্সের নাগরাকাটা থানা এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে বলে কলকাতার দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকাটি জানিয়েছে।
প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে, নিহত ব্যক্তি বহুরুপী সেজে বিভিন্ন বাজার এলাকায় অর্থোপার্জন করতেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম ঠিকানা জানা যায়নি।
সোমবার সকালে ওই ব্যক্তি নারী সেজে এলাকায় ঘুরছিলেন। তা দেখে শুলকাবাড়ি বাজারের কয়েকজন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। সেই সময় কেউ কেউ ওই ব্যক্তিকে ছেলেধরা বলে সন্দেহ প্রকাশ করেন। তারপরেই কয়েকজন ওই ব্যক্তির উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। বাজারের মধ্যেই বাঁশ, লাঠি দিয়ে মারা শুরু করে। রাস্তার পাশে ফেলে রাখা পাথর দিয়েও থেঁতলে মারা হয়।
গত কয়েক সপ্তাহ ধরে পশ্চিমবঙ্গের নানা স্থানেও ‘ছেলেধরা’ র গুজব ছড়াচ্ছে বলে কলকাতার দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন জানিয়েছে। সংবাদপত্রটি লিখেছে, পরিস্থিতি যাতে হাতের বাইরে না চলে যায় সেই কারণে পুলিশ ও প্রশাসনের তরফে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল।
কিন্তু তার মধ্যেই রোববার ও সোমবার দুজনকে মারধর করা হয়। এরপর ডুয়ার্সের ঘটনাটি ঘটল।
মালের এসডিপিও দেবাশিস চক্রবর্তী আনন্দবাজারকে বলেন, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, গুজবের জেরেই এই ঘটনা। আমরা এই গণপিটুনির সঙ্গে যুক্ত কয়েকজনের নাম জানতে পেরেছি। তাদের গ্রেপ্তার করার চেষ্টা চলছে।
বাংলাদেশে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজে মানুষের মাথা লাগবে বলে মাসখানেক আগে ফেইসবুকে গুজব ছড়ানো হয়। তবে যাতে বিভ্রান্ত না হতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল বাংলাদেশ সরকার। গুজব ছড়ানোর অভিযোগে বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft