gramerkagoj
রবিবার ● ২১ এপ্রিল ২০২৪ ৮ বৈশাখ ১৪৩১
gramerkagoj
যশোরে আবাসিক হোটেলের রুমে ঢুকে চাকু ঠেঁকিয়ে ছিনতাই, আটক ২
প্রকাশ : বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি , ২০২৪, ১০:০৭:০০ পিএম
কাগজ সংবাদ:
GK_2024-02-28_65df5ab7d3b6d.jpg

যশোরের একটি আবাসিক হোটেলের রুমে ঢুকে চাকু ঠেঁকিয়ে মোবাইল, ল্যাপটপ ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ। আটকরা হলেন সিটি কলেজ পাড়ার আব্দুল বারেকের ছেলে শুকুর আলী ও আবাদ কচুয়া গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে রকিবুল ইসলাম রকি ওরফে হৃদয়। পরে তাদের কাছ থেকে ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত চাকু ও ছিনতাই করা ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে।
ভিকটিম নাটোরের সাহাপুর গ্রামের মুন্নাফ হোসাইন জানান, তিনি টাওয়ার কোম্পানির সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে যশোরে কর্মরত রয়েছেন। বিভিন্ন উপজেলায় তাকে কাজে যেতে হয়। রাতে গোহাটা রোডের সিটি হোটেলে অবস্থান করেন। গত ১৩ ফ্রেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় তিনি বাঘারপাড়ার চাড়াভিটার গ্রামীণ ফোন টাওয়ারের কাজ শেষে বাসে মণিহারে আসেন। পরে সেখান থেকে একটি ইজিবাইকে উঠে গোহাটা রোডের সামনে নামেন। গোহাটা রোডের হোটেল সিটি আবাসিকের ছয়তলার ৬০৩ নাম্বার রুমে যান তিনি। দরজা আটকে দেয়ার এক মিনিটের মাথায় বাইরে থেকে দরজা নক হয়। দরজা খুলতেই দুই যুবক তার গলায় চাকু ধরে হত্যার হুমকি দেন। পরে তার কাছে থাকা দুটি মোবাইলফোন, একটি ল্যাপটপ ও মানিব্যাগ নিয়ে সটকে পড়ে ওই দুইজন। পরে তিনি এ ঘটনায় ডিবি পুলিশকে জানান। এরপর কাজ শুরু করে ডিবি পুলিশ।
ডিবির এসআই মফিজুল ইসলাম বলেন, প্রথমে তারা ওই হোটেলের নিচের একটি প্রতিষ্ঠানের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করেন। পরে আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ নিয়ে কাজ শুরু করেন। একপর্যায়ে তারা আসামিদের শণাক্ত করেন। এরপর ভিকটিমের মোবাইল ফোনের লোকেশন ট্রাক করে বুধবার ভোরে শুকুরের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। একইসাথে তার কাছ থেকে দুটি চাকু ও একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। বিকেলে মণিহার এলাকা থেকে হৃদয়কে আটক করা হয়। পরে তার কাছ থেকে আরেকটি মোবাইল ফোন ও একটি ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়।
তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় মামলা হয়েছে।

আরও খবর

🔝