gramerkagoj
বৃহস্পতিবার ● ৩০ মে ২০২৪ ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
gramerkagoj
দাজ্জালের ফিতনা থেকে বাঁচতে জুমার দিনে যে আমল করবেন
প্রকাশ : শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল , ২০২৪, ০৩:৪৭:০০ পিএম
কাগজ ডেস্ক:
GK_2024-04-26_662b7188ee157.jpg

মুসলমানদের জন্য সাপ্তাহিক বিশেষ ইবাদতের সময় হচ্ছে জুমার দিনটি। অন্যান্য দিনের তুলনায় এ দিনের ইবাদতের ফজিলত অনেক বেশি। জুমার দিনে সুরা কাহাফ তিলাওয়াত একটি বিশেষ আমল। জুমার দিন সুরা কাহাফ তিলাওয়াতের ফজিলত সম্পর্কে আবু সাইদ খুদরি (রা.) থেকে বর্ণিত হয়েছে আল্লাহর রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেন, যে ব্যক্তি জুমার দিন সুরা কাহাফ পড়বে, তা তার জন্য পরবর্তী জুমা পর্যন্ত নুর হবে। (মুসতাদরাকে হাকেম)
ইবনে ওমর (রা.) থেকে বর্ণিত আল্লাহর রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেন, যে ব্যক্তি জুমার দিন সুরা কাহাফ তিলাওয়াত করবে, তা তার জন্য তার পায়ের নিচ থেকে আকাশ পর্যন্ত নূর হয়ে চমকাতে থাকবে যা কেয়ামতের দিন তাকে আলো দেবে এবং তার দুই জুমার মধ্যবর্তী গুনাহ ক্ষমা করে দেওয়া হবে। (ইবনুল মুনজির ফিত-তারগীবি ওয়াত-তারহীব)
অন্য কিছু হাদিসে সুরা কাহাফের প্রথম দশ আয়াত হিফজ ও তিলাওয়াতকে দাজ্জালের ফিতনা থেকে বেঁচে থাকার উপায় বলা হয়েছে। আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেছেন, আবু দারদা (রা.) থেকে বর্ণিত নবিজি (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেন, যে ব্যাক্তি সুরা কাহফের প্রথম দশ আয়াত মুখস্থ করবে সে দাজ্জাল এর ফিতনা থেকে রক্ষা পাবে। (সহিহ মুসলিম: ১৭৫৬)
নাওয়াস ইবনে সামআন (রা.) থেকে বর্ণিত আরেকটি হাদিসে আল্লাহর রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেন, আপনাদের মধ্যে যারা দাজ্জালের সম্মুখীন হবে তারা যেন তার সামনে সুরা কাহফের প্রথমাংশ থেকে তিলাওয়াত করে। এ আয়াতগুলো আপনাদের দাজ্জালের ফিতনা থেকে নিরাপদ রাখবে। (সহিহ মুসলিম: ২৯৩৭)
তাই প্রতি জুমার দিন সুরা কাহাফ তিলাওয়াতের আমলটি করলে হাদিসের ঘোষণা অনুযায়ী অন্যান্য ফজিলতের পাশাপাশি দাজ্জালের ফিতনা থেকেও আল্লাহ রক্ষা করবেন।
কেয়ামতের আগে দুনিয়াতে দাজ্জালের আবির্ভাব এক বিরাট ফেতনা। আল্লাহ তাআলা তাকে অনেক বড় বড় আশ্চর্য রকমের ঘটনা ঘটানোর শক্তি ও সামর্থ্য দান করবেন। ফলে দাজ্জাল দুর্বল ইমানের মুসলমানদের ওপরও প্রভাব বিস্তার করতে সক্ষম হবে। নবিজি (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম দাজ্জালের ফেতনা থেকে বাঁচতে আল্লাহর কাছে এভাবে আশ্রয় চাইতে বলেছেন,
আল্লাহুম্মা ইন্নি আ’উজুবিকা মিন ফিতনাতি মাসিহিদ দাজ্জাল।
অর্থ: হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে অভিশপ্ত দাজ্জালের ফেতনা থেকে আশ্রয় চাই।
আল্লাহর ওপর দৃঢ় ইমান, শরিয়তের যথাযথ অনুসরণ ও আল্লাহর পরিচয় সম্পর্কে দৃঢ় বিস্তারিত জ্ঞানও দাজ্জালের ফেতনা থেকে বেঁচে থাকতে সাহায্য করবে।

আরও খবর

🔝