gramerkagoj
বৃহস্পতিবার ● ৩০ মে ২০২৪ ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
gramerkagoj
হত্যার ২১ বছর পর ১৯ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড
প্রকাশ : সোমবার, ২৯ এপ্রিল , ২০২৪, ০১:৫১:০০ পিএম , আপডেট : বুধবার, ২৯ মে , ২০২৪, ০৩:০০:৩২ পিএম
কাগজ ডেস্ক:
GK_2024-04-29_662f537a70f55.jpg

হত্যার ২১ বছর পর ১৯ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে কৃষক আব্দুর রহমান হত্যা মামলায় এ রায় ঘোষণা করেন আদালত। সোমবার (২৯ মার্চ) দুপুরে জয়পুরহাটের অতিরিক্ত দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক নুরুল ইসলাম এ রায় দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেন জয়পুরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল।
সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে আলম, দোলা, ওসমান, কোরমান, আজাদুল, লাবু, বাবু, আমিনুর, ফারাজ মণ্ডল, শুকটু, দুলাল, আলিম, নজরুল, সাইদুল, সানোয়ার, সাইফুল, কালাম আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অপর আসামি জহুরুল ও উকিল পলাতক আছেন।
মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০০২ সালের ২২ নভেম্বর রাত ১২টার দিকে পাঁচবিবি উপজেলার হরেন্দ্রা গ্রামের কৃষক আব্দুর রহমানকে একই গ্রামের আ: গফুরসহ বেশ কয়েকজন ধানের জমি থেকে তুলে নিয়ে যায় কালামের বাড়িতে। সেখানে আব্দুর রহমানকে লাঠি, লোহার রড, সাইকেলের চেইন ও কারেন্টের তার দিয়ে বেধড়ক মারপিট ও নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের ভাই আব্দুল বারিক মুন্সি বাদী হয়ে ২৩ নভেম্বর ২৪ জনের নাম উল্লেখ করে পাঁচবিবি থানায় মামলা করেন। পরবর্তীতে ২০০৩ সালের ৩ এপ্রিল তৎকালীন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জাহেদুল হক ১৯ জনের নামে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এ মামরঅর দীর্ঘ শুনানি শেষে রোববার দুই আসামির অনুপস্থিতিতে ও ১৭ জনের উপস্থিতিতে আদালতের বিচারক ওই রায় ঘোষণা করেন।
মামলায় বাদীপক্ষের আইনজীবী ছিলেন, সরকারি কৌঁসুলি নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল (পিপি), উদয় শিং (এপিপি)। আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন, মোস্তাফিজুর রহমান ও সোহেলী পারভীন সাথি।

আরও খবর

🔝