gramerkagoj
শুক্রবার ● ১৪ জুন ২০২৪ ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
gramerkagoj
আজ বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা
প্রকাশ : সোমবার, ১০ জুন , ২০২৪, ০৭:০০:০০ পিএম
ক্রীড়া ডেস্ক:
GK_2024-06-10_6666fbfa2a2d4.jpg

টি-২০ বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ ছিল শ্রীলঙ্কা। আজ রাত সাড়ে আটটায় দ্বিতীয় ম্যাচ। এ ম্যাচে প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। নিউইয়র্কের নাসাউ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে।
নাসাউ কাউন্টি ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামের ‘ড্রপ ইন পিচ’ এবার শুরু থেকেই ফাস্ট বোলারদের পক্ষে। ম্যাচের আগে সুখরব বাংলাদেশ শিবিরে। চোট কাটিয়ে অনুশীলনে ফিরেছেন পেসার শরিফুল ইসলাম। আজকের ম্যাচে তাকে খেলানোর ইংগিত রয়েছে। শরিফুল খেললে বাদ পড়তে পারেন তানজিম হাসান সাকিব।
এই ভেন্যুতে আগে ব্যাট করে কোন দলই লড়াকু পুঁজি গড়তে পারেনি। উল্টো মুখ থুবড়ে পড়েছে। তাই খুব স্বাভাবিকভাবেই আজ সোমবার বাংলাদেশের সাথে একই মাঠে একই সময়ে টস জিতে আগে বোলিং করতে চাইবে দক্ষিণ আফ্রিকা।
বাংলাদেশের ভক্ত ও সমর্থক সবার চাওয়া টসে জয় পায় বাংলাদেশ। টস জিততে না পারলে নিউইয়র্কের ড্রপ ইন পিচের বাড়তি গতি, বাউন্স ও সুইংয়ে বিপর্যয় ঘটতে পারে বাংলাদেশের ব্যাটারদের।
এতদিন জানা ছিল, ড্রপ ইন পিচ মূলত ¯øথ ও মন্থর গতির খানিক নির্জিব পিচ হয়। কিন্তু নাসাউ স্টেডিয়ামের এই ড্রপ ইন পিচের আচরণ অনেকটাই ভিন্ন। খানিক পাগলাটে। ড্রপইন পিচ মানেই মাটির উইকেটের মাটিরই একটি ¯ø্যাব ভিন্ন জায়গায় তেরি করে একদম ওপরের স্তরে বসানো উইকেট।
তাতে করে ড্রপ ইন পিচের ওপরের স্তরের সাথে মূল স্তরের একটা সূক্ষè ফারাক থাকে। এ কারণেই উইকেটের গতি কমে যায়। কিন্তু নিউইয়র্কের নাসাউ স্টেডিয়ামের উইকেটের গতি কম নয়। অনেক বেশি। অনেক আনইভেন বাউন্স আছে, যা পেস বোলারদের জন্য অনেক কার্যকরি। তাই এ পিচ এখন পেসারদের অনুকুল ক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে।

আরও খবর

🔝