gramerkagoj
বৃহস্পতিবার ● ১৮ জুলাই ২০২৪ ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
gramerkagoj
ঢাকা-বেইজিং দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শুরু
প্রকাশ : বুধবার, ১০ জুলাই , ২০২৪, ১১:২৪:০০ এএম , আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই , ২০২৪, ০১:২১:৫৯ পিএম
কাগজ ডেস্ক:
GK_2024-07-10_668e18c0b81a9.jpg

বেইজিংয়ের গ্রেট হল অব দ্য পিপলে বেলা ১১টা ১০ মিনিটে বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে প্রতিনিধি পর্যায়ের দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শুরু হয়েছে।
বৈঠকে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং চীনা প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কিয়াং।
দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীদ্বয়ের উপস্থিতিতে ঢাকা ও বেইজিংয়ের মধ্যে প্রায় ২০টি সমঝোতা স্মারক সই ও নবায়ন করা হবে।
এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একই ভেন্যুতে চীনা প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক আয়োজিত স্বাগত ভোজসভায় যোগ দেবেন।
এর আগে বেলা পৌনে ১১টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গ্রেট হলে পৌঁছালে সেখানে তাকে স্বাগত জানান চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কিয়াং।
গ্রেট হলে শেখ হাসিনাকে রাষ্ট্রীয়ভাবে অভ্যর্থনা জানানো হয়েছে। এখানে তাকে লাল গালিচা সংবর্ধণা ও গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।
শুভেচ্ছা বিনিময়ের পর সফররত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে অভিবাদন মঞ্চে যান চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কিয়াং।
অভিবাদন মঞ্চে শেখ হাসিনা ও লি কিয়াং-কে সশস্ত্র সালাম দেয় চীনের সশস্ত্র বাহিনীর একটি চৌকস দল। এ সময় দু’দেশের জাতীয় সংগীত বাজানো হয়।
এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিবাদন জানিয়ে তোপধ্বনি দেওয়া হয়। পরে দুই প্রধানমন্ত্রী সশস্ত্র বাহিনীর প্যারেড পরিদর্শন করেন।
শেখ হাসিনাকে রাষ্ট্রীয় ভাবে অভ্যর্থনা জানানোর পর দুই দেশের প্রতিনিধিদের নিয়ে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসেন দুই প্রধানমন্ত্রী।
শেখ হাসিনা এবং লি কিয়াংয়ের মধ্যেকার বৈঠকের পর তাদের উপস্থিতিতে দুই দেশের মধ্যে বেশ কয়েকটি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হওয়ার কথা।
দুপুরে গ্রেট হলে চীনা প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া মধ্যাহ্ন ভোজে যোগ দেবেন বাংলাদেশ সরকারপ্রধান।
বিকেলে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
চীনে দ্বিপাক্ষিক সফর শেষে বুধবার (১০ জুলাই) রাতে দেশে ফিরবেন তিনি।
এর আগে সোমবার (জুলাই ০৮) সন্ধ্যায় তিন দিনের দ্বিপক্ষীয় সফরে চীনের রাজধানী বেইজিং আসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আরও খবর

🔝