আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
শিরোনাম: খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে আরও ৭ মৃত্যু       বাংলাদেশ চায় রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনে জাতিসংঘ স্পষ্ট রোডম্যাপ তৈরি করুক       মারা গেলেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আলতাফ হোসেন       কখনও পরমাণু যুদ্ধে জড়ানো যাবে না : যৌথ বিবৃতিতে পুতিন ও বাইডেন       বৃষ্টি আরও দুদিন হতে পারে       রাজধানীতে দেশীয় অস্ত্রসহ কিশোর গ্যাংয়ের ৮ সদস্য গ্রেফতার       চট্টগ্রামে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৮ মামলার আসামি গুলিবিদ্ধ        রাজশাহী মেডিকেলে আরও ১০ জনের মৃত্যু       চট্টগ্রামে করোনায় আরও দুইজনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬৯       জয়পুরহাটে করোনায় ৭৪ জন আক্রান্ত       
ইরা কারা?
Published : Monday, 10 May, 2021 at 10:36 PM, Count : 183
ইরা কারা?তামাম জাগায় আমাগের নামে এট্টা বইদরাম আচে সিডা হচ্চে আমরা নাই হুজুগে বাঙালী।  কোনটোয় এট্টা খবর চাউর হলি সিডা সত্যি না মিত্যে সিডা যাচাই বাচাই না কইরেই লাফ দিয়ে পড়ে আগে করার জন্যি।
বেশ কয় বচর আগে হটাস এক রাত্তিরি কারা যেন রটায় দেলে ভারী রাত্তিরি বাশ বাগানে যাইয়ে বাশের কুড়া কিম্বা কুঞ্চি কাটলি ট্যাপের মতো দদ্দর কইরে পানি বাইরোচ্চে। সেই পানি রাত্তিরি খালি ক্যান্সাত্তে শুরু কইরে পিচ্চাপের দোষ পন্তিক সাইরে যাচ্চে। কতায় কয় ঢাকের বাড়ির চাইতি চুপার বাড়ির দৌইড় বেশী। ব্যাস মুকি মুকি কতাডা রটতিই রাত্তিরি বাশ বাগানো লোকে লুকারন্য। কার আগে কিটা কুঞ্চিতি কোপ দেবে তাই নিয়ে পাল্লাপাল্লি। সেই রেশ কাটতি না কাটতি রইটে গ্যালো ঝিনেদা পবাহাটির এক কোবরেজের খবর। কালো কুকড়ো আর কালো কুকড়ো ডিম পইড়ে দিলে সব খালাস। চারিদিকতি লোক হুড়োয় যাতি লাইগলো ঝিনেদায়। সে সুমায় কালো কুকড়ো না পাইয়ে বহুত ব্যবসায়ী সাদা কুকড়োয় কলপ মাইরে কালো করিল। কলপ দিয়া কুকড়োও তকন খুব চাহিদা ছিলো। একবার যাওয়ার পতে হটাস বিস্টি আসলি কলপের রহস্য বারোয় পড়ে। একবার শুনলাম একজন রাত্তিরি ঘোমের ঘোরে স্বপনের মদ্দি কি পাইয়েচে তাই পইড়ে ফু দিলি সব রোগ্য চুয়া হইয়ে যাচ্চে। ব্যাস সবাই ছুইটলো ফু নিতি। লোকের লাইন হ্যাতো লম্বা হইয়ে গ্যালো পাচে মাইক খাটায়ে ফু দিতি লাইগলো আর মাইকের সুমকি বোতলের মুকটি খুইলে ধইরে পানিতি ফু নিলি বহুত জন।
হালি কইরে আবার আলোচুনায় আমাগের যশোর সদর উপজিলার নুয়াপাড়া ইউনিয়নের কুটি গুপালপুর গিরাম। স্যানে নাই এক পুকোর খুচতি যাইয়ে এক গজাল মাছ উইটেচে। তারপর স্বপ্নে কি দে কি দেকায়েচে। একন নাই সেই পুকোরির পানি খালি নতুন পুরোন সব ব্যারাম চুয়া হইয়ে যাচ্চে। কার সাইরেচে সিডা কেউ জানে না তেবে মুকি মুকি চাউর হওয়া কতায় সব হুড়োয়ে পুকোর কান্দায় আইসতেচে। কেউ জুতো স্যান্ডেল খুইলে পুকোরির সালাম কত্তেচে। কেউ বোতলে ভইরে পানি আর পুকোরির কাদা নিয়ে যাচ্চে মনের নানান আশা পুরোন কত্তি।
কায় কারবারের কতা শুইনে আকাটা মাইরে যাচ্চি। আলাম কনে, মলাম যে !
ইতি-
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩








« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft