দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: ভারতীয় রেলওয়ের ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’ বাংলাদেশে        বাগেরহাটে ইজিবাইক দুর্ঘটনা পিকআপের চালক কারাগারে       সম্প্রীতি বাংলাদেশের আয়োজনে অক্সিজেন সিলিন্ডার বিতরণ        যশোরে বাকপ্রতিবন্ধি যুবক খুন       নড়াইলে অস্ত্রসহ যুবক গ্রেপ্তার       নড়াইলে দু’মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১       মেয়েলি ঘটনাসহ কয়েকটি কারণে এই খুন! অভিযুক্ত ৮, আটক ৩       করোনা প্রতিরোধে ২১ কোটি টিকার ব্যবস্থা করা হয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী       সংক্রমণ বাড়তে থাকলে ভয়ানক অবস্থা তৈরি হতে পারে : কাদের       ভারত থেকে ২৫০টি ভেন্টিলেটর আসছে       
গ্রামের কাগজের সংবাদে মাঠে র‌্যাবের গোয়েন্দা ইউনিট
১২ লাখ টাকা হাতানো অস্ত্রধারী প্রতারক মোস্তাককে খোঁজা হচ্ছে
বিশেষ প্রতিনিধি
Published : Wednesday, 16 June, 2021 at 8:26 PM, Count : 268
১২ লাখ টাকা হাতানো অস্ত্রধারী প্রতারক মোস্তাককে খোঁজা হচ্ছেকখনও আনসার সদস্য, কখনও বা র‌্যাব সদস্য পরিচয় দিয়ে ব্যবসার নামে বারান্দীপাড়া থেকে এক যুবকের ১২ লাখ টাকা হাতিয়ে সটকে পড়া অস্ত্রধারী প্রতারককে খুঁজছে র‌্যাবের গোয়েন্দা ইউনিট।
প্রতারণা ও ভুক্তভোগীকে অস্ত্র উঁচিয়ে হত্যার হুমকি দেয়ার ঘটনায় দৈনিক গ্রামের কাগজে সংবাদ প্রকাশিত হলে মাঠে নেমেছে ইউনিটটি। গত কয়েকদিন ওই ইউনিটের এক সদস্য ঝিনাইদহ, যশোর, মহেশপুর ও বাঘারপাড়া এলাকায় খোঁজ-খবর নিয়েছেন।  
বছর দুয়েক আগে যশোরের বারান্দীপাড়া ফুলতলার মৃত কাউছার আলী বিশ^াসের ছেলে শাহিনুর ইসলাম শাহিনের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে ওঠেন বাঘারপাড়ার জয়নগর গ্রামের খোদা বক্সের ছেলে বিল্লাল হোসেন ওরফে মোস্তাক। ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করার সময় তিনি নিজেকে কখনও আনসার সদস্য, কখনও র‌্যাব সদস্য, আবার কখনও বা র‌্যাব সেজে শাহিনুরের সাথে সখ্যতা করে। ঝিনাইদহের বিভিন্ন এলাকায় তার পুকুর লিজ ও মাছ চাষ রয়েছে ধুয়ো তুলে ব্যবসায়ীক পার্টনার করার কথা বলে ৫ দফায় ১২ লাখ ২২ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন। আর ওই টাকা হাতিয়ে নিয়ে এখন তিনি ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার উজলপুর সস্তার বাজারে ঘাঁটি গেড়েছেন। বারান্দীপাড়ার শাহিনের বাসায় বসে ওই টাকা হাতিয়ে নেয়ার সময় প্রতারক বিল্লাল হোসেনের সাথে বিভিন্ন দফায় উপস্থিত ছিলেন সহযোগী প্রতারক বিল্লালের স্ত্রী রিমা খাতুন, ঝিনাইদহর মহেশপুরের উজলপুর সস্তার বাজার এলাকার বিল্লাল হোসেনের ছেলে জহির উদ্দিন, বিল্লাল হোসেন, মহেশপুর উপজেলার শ্রীরামপুরের রহুল আমিনের ছেলে মাসুদ হোসেন।  কিন্তু পরে টাকা না দিয়ে উল্টো অস্ত্র উঁচিয়ে হত্যার হুমকি দেয়।
এ ঘটনায় ২ জুন যশোর কোতোয়ালি থানায় অভিযোগ করেন শাহিনুর রহমান শাহিন। অভিযোগ তদন্তে কোতোয়ালির অফিসার ইনচার্জ যশোর সদর ফাঁড়ি ইনচার্জকে দায়িত্ব দেন। অথচ গত ১২ দিনেও অভিযোগটি নিয়ে কেনো উচ্চবাচ্য করেনি পুলিশ। অস্ত্র প্রদর্শন করে বাদীকে প্রতারক হুমকি দিয়েছে এমন তথ্য ওই অভিযোগে থাকলেও নানামুখি তালবাহানায় লিপ্ত হয় ফাঁড়ি পুলিশ। এ নিয়ে দৈনিক গ্রামের কাগজে দুটি সংবাদ প্রকাশিত হলে তা দৃষ্টিগোচর হয় র‌্যাব ঝিনাইদহ ক্যাম্পের অধীনের গোয়েন্দা ইউনিটের।
র‌্যাবের গোয়েন্দা ইউনিটের সদস্য মাহমুদ হোসেন সাগর বিষয়টি নিয়ে মাঠ পর্যায়ে তদন্তে নেমেছেন। গত কয়েকদিন তিনি প্রধান প্রতারক মোস্তাকের খোঁজে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার উজলপুরের সস্তার বাজার এলাকায় যান। কিন্তু সেখানে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে তিনি মোস্তাকের শ^শুরের সাথে কথা বলেছেন। এছাড়া ১৬ জুন যশোরে এসে ওই গোয়েন্দা সদস্য ভুক্তভোগী শাহিনুর রহমান শাহিন ও যশোর সদর ফাঁড়ির এস্্্্্্আই শরিফুল ইসলামের সাথেও কথা বলেছেন।
এছাড়া এ প্রতিবেদকের সাথেও কথা বলেছেন র‌্যাবের গোয়েন্দা ইউনিটের ওই সদস্য। তিনি জানান, বিষয়টি নিয়ে তিনি খোঁজ-খবর নিচ্ছেন। সংশ্লিষ্ট সবার সাথে কথা বলছেন। ভুক্তভোগী   শাহিন যাতে সহযোগিতা পান সে ব্যাপারেও তিনি কাজ করবেন। এছাড়া অভিযুক্তের বিষয়েও তিনি খোঁজ খবর নিচ্ছেন।
এদিকে, ভুক্তভোগী শাহিন জানিয়েছেন, যশোর সদর ফাঁড়ি পুলিশের দায়িত্ববোধ দেখে তিনি হতবাক হয়েছেন। ফাঁড়ির তদন্ত কর্মকর্তা উল্টো সুরে কথা বলেছেন অভিযোগ দেয়ার ১২ দিন পরে। এ ব্যাপারে তিনি পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। একই সাথে এ বিষয়ে তদন্তে নামায় ঝিনাইদহ র‌্যাবের গোয়েন্দা ইউনিটকে ধন্যবাদ জানান।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft