মতামত
শিরোনাম: যশোরের ৪ অফিসার পুরস্কৃত       ট্রেনের ভাড়াও বাড়ানো হতে পারে : রেলমন্ত্রী       গম-ভুট্টা চাষিরা কম সুদে পাবেন ১ হাজার কোটি টাকার ঋণ       ৩৮ দিন পর করোনায় মৃত্যু শূন্য দিনে দেখলো দেশ       আমদানি পণ্যের ট্রাকে মিলল ফেনসিডিল-ওষুধ        শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে গাছে ধাক্কা খেয়ে বাইকার নিহত       মাছে রং মেশানোর অপরাধে ২ ব্যবসায়ীকে জরিমানা       বাংলাদেশকে জিডিআইতে যুক্ত হতে প্রস্তাব দিয়েছে চীন       তাজিয়া মিছিলে বর্শা-বল্লম-তরবারি নয়, আতশবাজি নিষিদ্ধ       হজে গিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি করা সেই মতিয়ারের জামিন      
আমার ওই একটু সিজনাল জ্বর হয়েছে...
নাজমুন নাহার রিনু
Published : Wednesday, 28 July, 2021 at 10:55 PM, Count : 1897
আমার ওই একটু সিজনাল জ্বর হয়েছে...ও ভাবি, তোমার কি শরীর খারাপ?
ওরে না, আমার ওই একটু সিজনাল জ্বর হয়েছে।
বর্তমানে পরিচিত মানুষদের কাছে শারীরিক অবস্থা জানতে চাইলে প্রায় সবাই এ ধরনের কথা বলছেন। ওই একটু সিজনাল বা ঠাণ্ডা জ্বর হয়েছে। নাপা, প্যারাসিটামল খেলে সেরে যাবে ইত্যাদি।
আসলে এই জ্বরটা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার জন্য হচ্ছে কিনা সেটা যাচাই করার প্রয়োজন এখনো আমরা মনে করছি না। ইচ্ছামত দোকানে, বাজারে যাচ্ছি, গণপরিবহনে চলাচল করছি। এলাকার মধ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছি। আমার দ্বারা কেউ আক্রান্ত হতে পারে তা জানা সত্বেও এমন কাজ থেকে বিরত থাকছি না। এছাড়া, করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরও কয়েক দিনের মধ্যে শরীর একটু ভালো হলে বাইরে বের হচ্ছি। করোনার নেগেটিভ ফলাফল পাওয়ার অপেক্ষা করছি না। যার কারণে প্রতিদিন সংক্রমণ বেড়ে চলেছে।
হাসপাতাল করোনা রোগীতে ভরে গেছে। রোগীর জন্য বেড, ফ্লোরে কোথাও জায়গা নেই। অক্সিজেন সিলিন্ডারের অভাব। চারপাশে ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজমান। দিন দিন মানুষের বেকারত্ব বাড়ছে, চাকরিজীবী মানুষ অসহায় হয়ে পড়েছে। এর সাথে সাথে স্কুল পড়ুয়া ছেলেমেয়েরা বিষণ্নতায় ভুগছে। এ পরিস্থিতিতে আমরা যদি এখনো সচেতন না হই তাহলে কবে হবো।
দার্শনিক ফ্রেডরিক লেঞ্জ বলেছেন-‘যদি আপনার সচেতনতা যথেষ্ট শক্তিশালী হয় তবে আপনি কখনো নিজের ঘর ছাড়াও পুরো পৃথিবীর ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারেন’। তাই আমাদের সবচেয়ে বড় প্রয়োজন যথাসম্ভব সচেতন হওয়া। অনেক সচেতন মানুষ আছেন যারা করোনা পরীক্ষা করছেন এবং নিজেরা ঘরে বন্দি হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন। আর অনেকে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে তেমন কোনো গুরুত্ব দিচ্ছেন না। নিজেরা সচেতনভাবে চলাফেরা করছেন না। এছাড়া, বাজারে এখনো মুদি দোকানি, মাছ ও তরকারি বিক্রেতাদের সবাইকে এখানো ইত্যাদি বিক্রেতাদের মুকে মাস্ক দেখা যাচ্ছে না। তারা নিজেদের বোধকে এখনো যদি সুচারু না করে তবে কখন করবে? করোনা উপসর্গ নিয়ে নিজেরা গোপনে ওষুধ খেয়ে সুস্থ হলাম ঠিকই। কিন্তু অন্য কেউ যে আমার দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে এটা বোঝার মত বোধশক্তি আমাদের নিশ্চয় আছে। অন্য কারো ক্ষতি হোক এটা আমরা কখনো চাইবো না। এজন্য শরীরে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ দেখা গেলে তখনই পরীক্ষা করাতে হবে। এছাড়া, প্রত্যেকেরই এই মুহূর্তে করোনা প্রতিরোধী টিকা নেয়া জরুরি কর্তব্য হয়ে পড়েছে।  অনেকে টিকা নেয়া সম্পর্কে ভ্রান্ত ধারণা পোষণ করছেন। মনে করছেন টিকার ডোজ দেয়ার ফলে অসুস্থ হয়ে পড়বেন। তবে বলা যায়, যে কোনো টিকা দিলে অনেক সময় হালকা জ্বর, মাথা ঝিমঝিম করতে পারে। এজন্য করোনার টিকা দেয়ার পর এটা হলেও তেমন কোনো পারিপার্শি¦ক অসুবিধা হবে না বলে জানা যায়। যত দ্রুত সম্ভব করোনার টিকা দেয়া উচিত আমাদের। অন্যথায় দিন দিন এর ভয়াবহতা আরও বাড়তেই থাকবে। তার সাথে সাথে লকডাউনও বাড়বে। মানুষ  হয়ে পড়বে বেকার। জীবন হয়ে উঠবে দূর্বিসহ, পৃথিবীর বুকে সুস্থভাবে বেঁচে থাকা হবে দুরূহ। এখন ভেবে দেখতে হবে আমরা কোনটা করবো?
লেখিকা: স্কুল শিক্ষিকা ও সাংস্কৃতিক কর্মী





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft